খামেনীকে ওবামার গোপন চিঠি

ইরাক ও সিরিয়ার বিস্তৃত অঞ্চলের দখল নেওয়া জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটকে (আইএস) দমনে ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনীর সাহায্য চেয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা।

তিনি সম্প্রতি খামেনীকে লেখা এক গোপন চিঠিতে এই সহায়তা চেয়েছেন।

বিখ্যাত ওয়ালস্ট্রিট জার্নাল এ সংক্রান্ত একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। এতে বলা হয়েছে, চিঠিতে ওবামা খামেনীকে পরমাণু চুক্তিতে সই করার জন্যও অনুরোধ করেছেন।

আগামী ২৪ নভেম্বর ইরানের পারমাণবিক কর্মসূচি নিয়ে ছয় জাতির আলোচনা শুরু হবে। সেখানে আইএসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ইরানের যেকোনো সহযোগিতা উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখবে বলে ওবামা তার চিঠিতে উল্লেখ করেছেন।

তবে হোয়াইট হাউস ওবামার ব্যক্তিগত এই চিঠির ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি।

গত অক্টোবরে ওবামার চিঠিটি খামেনীর কাছে পাঠানো হয়। ২০০৯ সালে ক্ষমতা গ্রহণের পর থেকে এ নিয়ে চতুর্থবার ওবামা ইরানি এই সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতাকে চিঠি লিখলেন।

আইএসের বিরুদ্ধে চলমান যুদ্ধে ইরানকে পাশে পাওয়াকে গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করেন বারাক ওবামা।

ওয়ালস্ট্রিট জার্নালের মতে, সাম্প্রতিক দিনগুলোতে ওবামা প্রশাসনের  কর্মকর্তারা মনে করছেন, ইরানের সঙ্গে পরমাণু কর্মসূচি নিয়ে চুক্তির প্রক্রিয়া ফিফটি-ফিফটি সম্ভাবনায় রয়েছে।

অবশ্য আন্তর্জাতিক পরমাণু চুক্তিতে সই করার ব্যাপারে আয়াতুল্লাহ আলী খামেনীর হাতে আগামী ২৪ নভেম্বর পর্যন্ত সময় রয়েছে।

এর আগে চলতি সপ্তাহে ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাওয়াদ জারিফ ও যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরির মধ্যে পূর্বনির্ধারিত আলোচনা রয়েছে।

বিশ্বের ক্ষমতাধর রাষ্ট্র যুক্তরাষ্ট্রের সন্দেহ, ইরান পারমাণবিক অস্ত্র তৈরি করছে। অবশ্য ইরান বরাবরই এ অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছে, তাদের এই পরমাণু কর্মসূচি বিদ্যুতের উন্নয়নে।

সূত্র: বিবিসি

You Might Also Like