কোহলিকে ছাড়িয়ে ক্রিকেটের নতুন ত্রাস বাবর

ক্রিকেটের কিংবদন্তি ক্রিকেটার শচীন টেন্ডুলকারের সঙ্গে তুলনা করা হয় বিরাট কোহলিকে। আর কোহলির সঙ্গে তুলনা করা হয় পাকিস্তানের তারকা ব্যাটসম্যান বাবর আজমকে। পাকিস্তানের বর্তমান সময়ের অন্যতম সেরা এ ব্যাটসম্যান সোমবার শ্রীলংকার বিপক্ষে ক্যারিয়ারের ৭১তম ওয়ানডেতে ১১তম সেঞ্চুরি করেন। আর এই সেঞ্চুরির করার মধ্য দিয়ে বিরাট কোহলিকে ছাড়িয়ে যান বাবর।

ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি ৮২তম ম্যাচে ১১টি সেঞ্চুরি হাঁকান। আর দক্ষিণ আফ্রিকার তারকা ব্যাটসম্যান হাশিম আমলা মাত্র ৬৪ ম্যাচ খেলে দ্রুততম ১১টি সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে ছিলেন।

দ্রুততম ১১টি সেঞ্চুরি হাঁকানোর দিক থেকে শীর্ষে হামিম আমলা। দ্বিতীয় বাবর আজম। আর তিন নম্বর পজিশনে এখন বিরাট কোহলি।

জাতীয় দলে অভিষেকের পর থেকেই একের পর এক রেকর্ড গড়ে যাচ্ছেন বাবর আজম। পাকিস্তানের এই সময়ের অন্য সেরা এ ব্যাটসম্যান শ্রীলংকার বিপক্ষে সোমবার ১০৫ বলে ১১৫ রান সংগ্রহ করেন।

এদিন করাচি স্টেডিয়ামে ক্যারিয়ারের ৭৩তম ম্যাচে ১১তম সেঞ্চুরি করার মধ্য দিয়ে পাকিস্তানের তিন কিংবদন্তি ব্যাটসম্যানকে ছাড়িয়ে গেলেন বাবর।

পাকিস্তানের হয়ে ৭৩তম ম্যাচে ৭টি সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে ছিলেন কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান সাইদ আনোয়ার। তিনি ওয়ানডে ক্রিকেটে পাকিস্তানের হয়ে ২৪৭ ম্যাচে সর্বোচ্চ ২০টি সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে শীর্ষে রয়েছেন।

অন্যদিকে মোহাম্মদ ইউসুফ ৭৩তম ম্যাচে মাত্র ৩টি সেঞ্চুরি করেছিলেন। তিনি ওয়ানডে ক্যারিয়ারে ২৮৮ ম্যাচ খেলে পাকিস্তানের হয়ে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১৫টি শতক হাঁকান। এই তালিকায় তৃতীয় পজিশনে আছেন বাবর আজম। তিনি ইতিমধ্যে ৭৩টি ম্যাচ খেলে ১১টি সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন।

শ্রীলংকার বিপক্ষে ১১৫ রানের ইনিংস খেলার মধ্য দিয়ে নিউজিল্যান্ডে অধিনায়ক ও বর্তমান সময়ের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান কেন উইলিয়ামসনকে ছাড়িয়ে যান বাবর।

চলতি বছরে ১৯টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলে ৩টি সেঞ্চুরি আর ৬টি ফিফটির সাহায্যে ১০৬১ রান করেন বাবর। তার চেয়ে এক ম্যাচ বেশি খেলে দুই সেঞ্চুরি আর ৬টি ফিফটির মাধ্যমে ৯৪৮ রান করেন উইলিয়ামসন।

তবে ওয়ানডে ক্রিকেটে চলতি বছর রান সংগ্রহের দিক থেকে শীর্ষে রয়েছে বিশ্বের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলি। ভারতীয় ক্রিকেট দলের এ অধিনায়ক ২৩ ম্যাচ খেলে ৫ টি সেঞ্চুরি আর ৬টি ফিফটির সাহায্যে ১২৮৮ রান করেছেন।

এই তালিকায় ১২৩২ রান নিয়ে দুইয়ে ভারতীয় ওপেনার রোহিত শর্মা। ১১৪১ ও ১০৮৫ রান নিয়ে তিন ও চতুর্থ পজিশনে আছেন অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ ও অজি ওপেনার উসমান খাজা। তার ঠিক পরেই রয়েছেন বাবর আজম।

পাকিস্তানের হয়ে ২১টি টেস্ট ম্যাচ খেলে ১টি সেঞ্চুরি করেছেন বাবর। সবমিলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ৯৪ ম্যাচে ১২টি সেঞ্চুরি করেছেন ২৪ বছর বয়সী এ তারকা ব্যাটসম্যান।

-বিডি২৪ লাইভ

You Might Also Like