কোরীয় উপদ্বীপে সামরিক মহড়ার কঠোর নিন্দা জানাল রাশিয়া

জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়াকে সঙ্গে নিয়ে কোরীয় উপদ্বীপে যৌথ সামরিক মহড়া চালানোয় আমেরিকার কঠোর নিন্দা জানিয়েছে রাশিয়া। উত্তর কোরিয়ার পক্ষ থেকে সম্ভাব্য হামলা প্রতিহত করার অজুহাতে ওই মহড়া চালাচ্ছে মার্কিন নেতৃত্বাধীন তিন দেশ।

রাশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শোইগু মঙ্গলবার আসিয়ানভুক্ত দেশগুলোর প্রতিরক্ষামন্ত্রীদের এক সম্মেলনে দেয়া ভাষণে বলেন, “আমরা উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র ও পরমাণু অস্ত্র পরীক্ষার নিন্দা জানাচ্ছি। একইসঙ্গে এ ধরনের পরীক্ষাকে উস্কে দেয়ার লক্ষ্যে কোরীয় উপদ্বীপে কয়েকটি দেশ যে মহড়া চালাচ্ছে তারও কঠোর নিন্দা জানাচ্ছি।”শোইগু বলেন, এই মহড়া নিঃসন্দেহে উত্তর কোরিয়াকে আরো উস্কে দেবে।

কোরীয় উপদ্বীপে ওয়াশিংটন, সিউল ও টোকিও দু’দিনব্যাপী ‘ক্ষেপণাস্ত্র সতর্কতামূলক মহড়া’ শুরু করার কয়েক ঘণ্টার মধ্যে রাশিয়া ওই নিন্দা জানাল। আমেরিকা, জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়া দাবি করছে, উত্তর কোরিয়ার সম্ভাব্য পরমাণু অস্ত্র ও ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র হামলা প্রতিহত করতে তারা এ মহড়া চালাচ্ছে।

এর আগে সোমবার মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী জেমস ম্যাটিস, জাপানের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ইতসুনোরি ওনোডেরা এবং দক্ষিণ কোরিয়অর প্রতিরক্ষামন্ত্রী সং ইয়ং-মু ফিলিপাইনে এক তৃপক্ষীয় বৈঠকে কোরীয় উপদ্বীপে মহড়া জোরদার করার কথা ঘোষণা করেন।

উত্তর কোরিয়ার দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র ও পারমাণিক অস্ত্র পরীক্ষার জের ধরে গত কয়েকমাস ধরে আমেরিকার সঙ্গে পিয়ংইয়ংয়ের তীব্র উত্তেজনা চলছে। আমেরিকা এ ধরনের পরীক্ষা বন্ধ করার জন্য উত্তর কোরিয়ার প্রতি আহ্বান জানালেও পিয়ংইয়ং বলেছে, ওয়াশিংটন বিদ্বেষী নীতি পরিহার করার আগ পর্যন্ত এ ধরনের পরীক্ষা চলতেই থাকবে।

You Might Also Like