কোন্ তালিকার ভিত্তিতে চলছে মাদকবিরোধী অভিযান?

কাদির কল্লোল, বিবিসি : তিন সপ্তাহে কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহতের সংখ্যা ৬০জনে দাঁড়িয়েছে। বাংলাদেশে অবৈধ মাদক ব্যবসার বিরুদ্ধে পুলিশ র‍্যাবের অভিযানে বৃহস্পতিবার রাত থেকে শুক্রবার সন্ধ্যা পর্যন্ত ২৪ ঘন্টায় দেশটির বিভিন্ন জায়গায় কথিত বন্দুকযুদ্ধে কমপক্ষে ১০ জন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।
এই অভিযানে গত তিন সপ্তাহে নিহতের সংখ্যা ৬০ জনে দাঁড়ালো। কিন্তু প্রশ্ন উঠছে, এই অভিযান কি কোনো তালিকার ভিত্তিতে হচ্ছে? সে তালিকা কার করা? এ প্রশ্নে পাওয়া যাচ্ছে ভিন্ন ভিন্ন বক্তব্য।
পুলিশ এবং র‍্যাবের সূত্রগুলো বলছে,তারা তাদের স্ব স্ব বাহিনীর তালিকা নিয়ে মাদক ব্যবসায়ীদের টার্গেট করে অভিযান চালাচ্ছে। কিন্তু স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উর্ধ্বতন একজন কর্মকর্তা দাবি করেছেন, সমন্বিত তালিকার মাধ্যমেই অভিযান চলছে।
দেশের বিভিন্ন এলাকায় প্রতিদিনই নিহত হওয়ার ঘটনা ঘটছে। এ পর্যন্ত নিহতদের দু’একজনের পরিবার ঘটনার প্রতিবাদ করে সাংবাদিকদের কাছে বক্তব্য তুলে ধরেছে। এর মধ্যে একজন – চট্টগ্রামের পটিয়া এলাকার হাবিবুর রহমান মাদকবিরোধী অভিযানে নিহত হওয়ার পর তার পরিবার সংবাদ সম্মেলন করেছে। তার মেয়ে তানজিদা রহমান বলছিলেন, তার বাবা স্থানীয় কোন গোষ্টীর ষড়যন্ত্রের শিকার বলে তারা বিশ্বাস করেন।
“আমার আব্বুকে ওরা কোথায় নিয়ে গেছে, আমরা জানতাম না। পরে বরিশাল কলোনীর দুই জনের লাশ টেলিভিশনের খবরে দেখাচ্ছে। তখন দেখলাম আমার আব্বুর লাশ এবং তার হাতে সিগারেট। কিন্তু তিনি কোনদিন সিগারেট খেতেন না।”
“আমার আব্বু মাদকের সাথে জড়িত ছিল না। কারণ আমার আব্বু বিদেশে ছিল কিছুদিন। বিদেশ থেকে আসার পর আব্বু কোর্ট বিল্ডিংয়ের কাছে নাস্তা বিক্রির দোকান করেছিল।”

You Might Also Like