কুড়ি বছর কোচিং করাবেন না জিদান

বল পায়ে সাবেক ফরাসি ফুটবলার এবং বর্তমান রিয়াল মাদ্রিদের কোচ জিনেদিন জিদান যেন এক জাদুকর ছিলেন। পায়ের কারিকুরিতে প্রতিপক্ষের খেলোয়াড়দের বোকা বানাতেন তিনি। ফুটবল ক্যারিয়ারে জাতীয় দলের হয়ে বিশ্বকাপ, ক্লাব ক্যারিয়ারে রিয়াল মাদ্রিদ, জুভেন্টাসের হয়ে সম্ভব সব শিরোপা জিতেছেন তিনি। এমনকি কোচিং পেশায় এসেও সাফল্যের সঙ্গেই সখ্যতা গড়ে তুলেছেন।

দুই অঙ্গনেই সাফল্য পাওয়া জিদান নিজেকে এখনও কোচের চেয়ে ফুটবলার হিসেবে পরিচয় দিতে বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন। বর্তমানে কোচিং করালেও এই পেশা থেকে দীর্ঘ দিনের জন্য বিরতি নেওয়ার কথা ভেবে রেখেছেন এই ফরাসি কিংবদন্তি। জানিয়েছেন, কুড়ি (২০) বছর কোচিংয়ে পা মাড়াবেন না তিনি। অন্য কিছু করবেন তিনি। তবে কী করবেন সেই উত্তর দেননি তিনি।

শনিবার সংবাদ সম্মেলনে নিজের কোচিং ক্যারিয়ার নিয়ে ভবিষ্যত ভাবনার কথা জানান জিদান। এই সময় তিনি বলেন, ‘কোচের চেয়ে ফুটবলার হিসেবে ভালো ছিলাম আমি। তবে এখন যেটা করছি, তা নিয়ে আমি খুশি। কিন্তু কোচ-ফুটবলার পরিচয় টেনে আনলে আমার ভাবনাটা এরকমই।’

এরপরই কোচিং ক্যারিয়ারের ভবিষ্যৎ নিয়ে বলেন, ‘জানি না কত বছর কোচিং করাব। আসলে আমি কোনো কিছু নিয়ে পরিকল্পনা করি না। প্রতিদিনের কাজই আমাকে অনুপ্রাণিত করে। তবে আমি ২০ বছর কোচিং করাব না। আমি অন্যকিছু করব।’

নিজের ফুটবল ক্যারিয়ারে জাতীয় দল ও ক্লাবের হয়ে অসংখ্য শিরোপা জিতেছেন। ইতালিয়ান সিরি আ লিগ ও স্প্যানিশ লা লিগা মাতিয়েছেন। তখন ঘুণাক্ষরেও ভাবেননি কোচ হবেন কখনো। তবে ২০১৩-১৪ মৌসুমে রিয়ালের সহকারী কোচ হিসেবে শুরু। এরপর একের পর এক দারুণ সব সাফল্য পেয়েছেন। জিতেছেন চ্যাম্পিয়ন্স লিগ, লা লিগা, স্প্যানিশ কাপসহ আরও অনেক কিছু।

‘আমি সবসময় একজন ফুটবলার-এই ভাবনাটাই আমার মাথায় থাকে। আমি ১৮-১৯ বছর খেলেছি এবং যখন আমাকে জিজ্ঞেস করা হতো, আমি কোচ হব কি-না, বলতাম, না। শেষ পর্যন্ত আমি কোচ হলাম। কিন্তু এই পেশা ধীরে ধীরে আমার আগ্রহ কেড়ে নেয়।’- নিজের কোচ হওয়ার কথা এভাবে ব্যাখ্যা করেন জিদান।

You Might Also Like