কুকুরের সঙ্গে তরুণীর বিয়ে

রূপের ঝলকানিতে পাড়ার যে কোন ছেলের চোখের ঘুম কেড়ে নেয় ১৮ বছরের মাঙ্গলি মুণ্ডা। পেছনে লাইনও একেবারে কম নয়। মাঙ্গলির জন্য তার অবর্তমানে পাড়ার যুবকদের ঝগড়া-বিবাদ জড়িয়ে মাথা ফাটানোর ঘটনাও দু’চারটি রয়েছে। সেই মাঙ্গলির কিনা বিয়ে হল একটি কুকুরের সঙ্গে।

ভারতের ঝাড়খণ্ডের এক প্রত্যন্ত গ্রামের সুন্দরী তরুণী মাঙ্গলি মুন্ডা। গ্রামবাসীরা জানিয়েছেন, গ্রামকে অপদেবতার হাত থেকে বাঁচাতেই এই উদ্যোগ।

এ খবর প্রকাশ্যে আসতেই হইচই পড়ে গেছে। ঘটনার তীব্র প্রতিবাদে সরব হয়েছেন সমাজকর্মীদের একাংশ।

স্থানীয় সূত্রে খবর, গ্রামের বড়রা মাঙ্গলি মুণ্ডার হাত দেখে বলেন, কোনও পুরুষের সঙ্গে তাঁর বিয়ে হলে তা মুণ্ডা পরিবার ও সম্প্রদায়ের ধ্বংস ডেকে আনবে। যার সঙ্গে মাঙ্গলির বিয়ে হয়েছে সেই কুকুর মশায়ের নাম ‘শেরু’। মাঙ্গলি কোনওদিন স্কুলে যায়নি। বিয়ের পর তাঁর বক্তব্য, আমি মোটেও বিয়ে করে খুশি নই। কিন্তু গ্রামের মানুষের ও আমার কপালের কথা ভেবে আমাকে এই বিয়ে করতে হল। এই বিয়ের পর আমি একজন পুরুষকে বিয়ে করতে চাই যার সঙ্গে আমি অনেকদিন কাটাতে পারব।

মাঙ্গলি জানিয়েছে, আমি এই বিয়ে করতে চাইনি। কিন্তু গ্রামবাসীরা দ্রুত এই বিয়ে সেরে ফেলতে বলছিল। কারণ, তারা চান যত দ্রুত গ্রামের উপর থেকে দুর্ভাগ্যের ছায়া সরে যায় ততই মঙ্গল।

স্থানীয় সূত্রে খবর, এই বিয়ের পর মাঙ্গলি আবার একটি বিয়ে করতে পারবে। কোনও সমস্যা হবে না। কুকুরটিকে ডিভোর্স করে এক পুরুষকে বিয়ে করতে পারবে মাঙ্গলি। এখন দেখার পালা কুকুরের বউকে বিয়ে করতে আগের মতো যুবকরা মাঙ্গলির পেছনে হুমড়ি খেয়ে পড়ে কিনা।

জানা গেছে, ওই গ্রামে এর আগেও এরকম ঘটনা ঘটেছে। বিয়েতে নিমন্ত্রিতের সংখ্যা ছিল ৭০ জনেরও বেশি। মাঙ্গলির মা সীমা দেবী জানিয়েছেন, কুকর হলে কী হবে, শেরুর সঙ্গে তাঁর মেয়ের বিয়েতে কোনও ফাঁক রাখা হয়নি।

You Might Also Like