কীর্তনখোলায় বালু উত্তোলন বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে হাই কোর্ট

বরিশাল সদর উপজেলার চর আইচা ও চরআবদানি মৌজায় বালু উত্তোলন বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে হাই কোর্ট।

বাংলাদেশ পরিবেশ আইনবিদ সমিতির করা এক রিট আবেদনের প্রাথমিক শুনানি করে বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি মো. আশরাফুল কামালের বেঞ্চ মঙ্গলবার এই আদেশ দেয়।

আদালতে আবেদনকারী পক্ষে শুনানি করেন মো. ইকবাল কবির লিটন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. মোতাহার হোসেন সাজু।

আদেশের পর লিটন বলেন, এই দুটি মৌজা আব্দুর রব সেরনিয়াবাত (দপদপিয়া) সেতুর এক কিলোমিটারের মধ্যে। এই সীমার মধ্যে বালু উত্তোলন করা যায় না।

এসএম হাসান হোসেন এন্টারপ্রাইজ নামে একটি প্রতিষ্ঠান চরকাউয়া, চর আইচা ও চর আদবানি মৌজা থেকে বালু উত্তোলন করছে।

বরিশালের সদর উপজেলার দক্ষিণ চর কাউয়ার ১৪৫৬ ও ১৪৬৫ নম্বর মৌজার ঘোষিত বালুমহাল কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না- তা জানতে চেয়ে একটি রুলও জারি করেছে আদালত।

কীর্তনখোলা নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন রোধ এবং নদীরক্ষায় কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না এবং ভবিষ্যতে বালুমহাল শুরুর আগে কেন পরিবেশগত প্রভাব নিরূপণ ও পরিবেশগত ছাড়পত্র নিতে নির্দেশ দেয়া হবে না, তাও জানতে চাওয়া হয়েছে রুলে।

ভূমি সচিব, পরিবেশ সচিব, পানি সচিবসহ বিবাদীদের চার সপ্তাহের মধ্যে এর জবাব দিতে বলা হয়েছে।

You Might Also Like