কাশ্মিরে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে ৩ গেরিলা নিহত

জম্মু-কাশ্মিরে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে ৩ গেরিলা নিহত হয়েছে। গতকাল (রোববার) গভীর রাতে অনন্তনাগ জেলার হাকুরা এলাকায় নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে গেরিলারা নিহত হয়। হাকুরা এলাকায় গেরিলাদের উপস্থিতির কথা জানতে পেরে নিরাপত্তা বাহিনী সেখানে অভিযান চালায়। ঘটনাস্থল থেকে একে ৪৭ রাইফেল সহ প্রচুর অস্ত্রশস্ত্র উদ্ধার হয়েছে।

ওই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে আজ (সোমবার) শ্রীনগরের লাকচক এলাকায় বনধ পালিত হয়েছে। শ্রীনগর ও আশেপাশের এলাকায় কারফিউয়ের মতো নিষেধাজ্ঞাসহ ইন্টারনেট পরিসেবা ও সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা হয়েছে। এছাড়া কাশ্মির উপত্যকা জুড়ে ট্রেন চলাচল স্থগিত করা হয়েছে। সমস্ত স্পর্শকাতর এলাকায় আধাসামরিক বাহিনী সিআরপিএফ মোতায়েন করা হয়েছে।
পরিস্থিতি উত্তপ্ত থাকায় এবং বিক্ষোভের আশঙ্কায় সতর্কতামূলক পদক্ষেপ হিসেবে পুলিশ জেকেএলএফ প্রধান মুহাম্মদ ইয়াসীন মালিককে আজ সকালে গ্রেফতার এবং হুররিয়াত কনফারেন্সের একাংশের প্রধান মীরওয়াইজ ওমর ফারুককে গৃহবন্দি করেছে।

এদিকে, নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে বন্দুক যুদ্ধে গেরিলারা নিহত হওয়ায় আজ রাজপোরা চক, মুররান চক এলাকায় প্রতিবাদী তরুণরা নিরাপত্তা বাহিনীকে টার্গেট করে পাথর নিক্ষেপ করলে উভয়পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে নিরাপত্তা বাহিনীকে এসময় কাঁদানে গ্যাসের সেল ফাটাতে হয়।
অন্যদিকে, কাশ্মির বিশ্ববিদ্যালয়ের জাকুরা ক্যাম্পাসে আজ ছাত্ররা প্রতিবাদ বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। তারা এসময় স্বাধীনতাকামী ও ভারত বিরোধী স্লোগান দেন। আজ বিশ্ববিদ্যালয়ের সমস্ত শিক্ষা বিভাগ বন্ধ রাখা হয় এবং আজকের নির্ধারিত পরীক্ষাও স্থগিত রাখা হয়েছে।

You Might Also Like