করোনা প্রতিরোধে ১০ কোটি টাকা দান করলেন মেসি

ইউরোপের উন্নত দেশগুলোতে করোনাভাইরাস বিপজ্জনক হারে বেড়েই যাচ্ছে। ইতালিতে প্রবলভাবে করোনা রোগী বৃদ্ধি পাওয়ার পর স্পেনেও বাড়ছে অস্বাভাবিক গতিতে।

করোনা প্রতিরোধে তাই সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে বার্সেলোনার তারকা ফুটবলার লিওনেল মেসি। রেকর্ড ছয়বারের এই ব্যালন ডি’অর জয়ী তারকা চিকিৎসার সরঞ্জাম কেনার জন্য বার্সেলোনা হাসপাতালকে এক মিলিয়ন ইউরো দান করেছেন।

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসে ইতিমধ্যে মারা গিয়েছেন প্রায় ১৯ হাজারের কাছাকাছি। এর মধ্যে সর্বোচ্চ প্রায় ৭ হাজার মারা গিয়েছেন ইতালিতে। এরপর চীনে ৩২৮১ জন। তবে ইউরোপে ইতালির পর স্পেনেই করোনাভাইরাস সবচেয়ে বেশি আক্রমণ করেছে। মোট ৪২ হাজার ৫৮ জন আক্রান্ত হয়েছেন এ পর্যন্ত। মারাও গিয়েছেন ২ হাজার ৯৯১ জন।

আর্জেন্টাইন তারকা মেসি গত ১৩ বছরের বেশি সময় ধরে স্পেনে বসবাস করছেন। বার্সায় খেলার সুবাদে এখানে সংসার পেতেছেন তিনি। ফলে আর্জেন্টিনার মতো কাতালুনিয়া শহরেও নিজের সামর্থ্য অনুযায়ী সাহায্য করে থাকেন মেসি। গত বছর একটি শিশু হাসপাতালে বিপুল পরিমাণ অর্থ দিয়েছিলেন বার্সার হয়ে সর্বোচ্চ এই গোলদাতা। সে ধারাবাহিকতায় করোনা বিপর্যস্ত সময়ে আবার বার্সেলোনা হাসপাতালে অর্থ দান করলেন মেসি।

সামাজিক মাধ্যম টুইটারে টুইট করে সংবাদটি নিশ্চিত করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। মেসি কি পরমাণ অর্থ দান করেছেন সেটি প্রকাশ না করলেও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন, ‘কোভিড-১৯ এর বিরুদ্ধে লড়াই করতে লিওনেল মেসি আমাদের অনুদান দিয়েছেন। আপনার প্রতিশ্রুতি এবং সমর্থন করার জন্য অনেক ধন্যবাদ লিও।’

এদিকে স্প্যানিশ গণমাধ্যম মুন্ডো দিপার্তিভো জানিয়েছে মেসি ১ মিলিয়ন ইউরো দান করেছেন। বাংলাদেশি টাকায় যা ৯ কোটি ৩০ লাখেরও বেশি।

You Might Also Like