করোনা জয় করে নতুন জীবন পেলেন ১১১২০ জন

গত ২৪ ঘণ্টায় ৫২৩ জনসহ এ পর্যন্ত ১১ হাজার ১২০ জন করোনা রোগী সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদফতর।

এই সময়ে সর্বোচ্চ ২ হাজার ৯১১ জন শনাক্ত ও ৩৭ জনের মৃত্যু হয়েছে।

এ নিয়ে দেশে মোট কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হলেন ৫২ হাজার ৪৪৫ জন এবং মারা গেলেন ৭০৯ জন।

মঙ্গলবার স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক নাসিমা সুলতানা নিয়মিত ব্রিফিংয়ে জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় ১৪ হাজার ৯৫০টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এর মধ্যে ১২ হাজার ৭০৪টি নমুনা পরীক্ষা করে ২ হাজার ৯১১ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। মারা গেছেন ৩৭ জন। এর মধ্যে পুরুষ ৩৩ জন ও নারী ৪ জন।

তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৫২৩ জন এবং মোট সুস্থ হয়েছেন ১১ হাজার ১২০ জন।

ডা. নাসিমা জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৫২৩ জন এবং মোট সুস্থ হয়েছেন ১১ হাজার ১২০ জন।

শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ২১ শতাংশ ও মৃত্যুর হার ১.৩৫ শতাংশ।

ডা. নাসিমা আরও জানান, বয়স বিশ্লেষণে ২১-৩০ বছরের মধ্যে একজন, ৩১-৪০ বছেরের মধ্যে ৪ জন, ৪১-৫০ বছরের মধ্যে একজন, ৫১-৬০ বছরের মধ্যে ১০ জন, ৬১-৭০ বছরের মধ্যে ৯ জন এবং ৭১-৮০ বছরের মধ্যে ১০ ও ৮১-৯০ বছরের মধ্যে ২ জন মারা গেছেন।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক জানান, বিভাগভিত্তিক পরিসংখ্যানে দেখা গেছে, ঢাকা বিভাগে ১০ জন, চট্টগ্রামে ১৫ জন, সিলেটে ৪ জন, বরিশালে ৩ জন, রাজশাহীতে ২ জন, রংপুরে ২ জন ও ময়মনসিংহ বিভাগে একজন মারা গেছেন। এর মধ্যে হাসপাতালে ২৮ জন ও বাসায় ৯ জন মারা গেছেন।

প্রসঙ্গত গত বছরের ৩১ ডিসেম্বর চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহর থেকে প্রথম করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। দেশে প্রথম কোভিড-১৯ রোগীশনাক্ত হন ৮ মার্চ এবং এ রোগে আক্রান্ত প্রথম রোগীর মৃত্যু হয় ১৮ মার্চ।

২৫ মার্চ প্রথমবারের মতো রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর) জানায়, বাংলাদেশে সীমিত পরিসরে কমিউনিটি ট্রান্সমিশন বা সামাজিকভাবে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ হচ্ছে।

You Might Also Like