করোনা কথা

মোহাম্মদ আলী

(প্রিয় শ্রদ্বেয় প্রতিবেশী কবি জীবনান্দ দাশের হায় চীল এর অনুপ্রেরণায়)

 

হায় সাদা লালে মাখা

অতি দ্রুত গতি আর্ত রোগী টানা গাড়ী,

বসন্তের এই ভেজা দুপুরে

তুমি আর কেদো নাকো ঘুরে ঘুরে

নিদারুন মৃত্যুর এই বিভৎস শহরে।

 

তোমার কান্নার সুরে

কত চোখ মনে আসে

কত মুখ কত গান

কত না সুখের ছবি।

পৃথিবীর রাঙা রাজকন্যাদের মত

হারায় তারা কত অজানা শশ্মানে।

 

তুমি আর কেদো নাকো ঘুরে ঘুরে

কতদিনের চেনা এই অজানা শহরে।

তুমি আর কেদো নাকো ঘুরে ঘুরে

কতদিনের চেনা এই অজানা শহরে।

 

আবার আসি যদি কোনদিন মৃত শব হয়ে,

ভালবাসার চুম্বন কি কভূ

খুঁজে পাবে এই নিথর অধরে?

 

কে হায় জাগাতে চায় বেদনার ছবি?

তুমি আর কেদো নাকো ঘুরে ঘুরে

অজানা যুদ্ধের এই মৃত শহরে।

 

এইতো সেদিন সেই বসন্তের ভেজা এক দুপুরে

দুজনে জমপেশ হয়ে ঠিক এই আসনটিতে

অহেতুক হেসে গডিয়ে নাকাল আমরা দুজনে।

কত গ্রীষ্ম আর কত বসন্ত পেডোলো

ঠিক এই রুক্ষ আসনটিতে

কখনো তুষার এসে কাপিয়ে দিত

আমাদের দুজনের এই ছোট্ট পৃথিবীতে।

 

তবুও থামিনি কখনও তেমন কোনও বরিষণে।

সিক্ত আসনটি তবু ছিল উত্তপ্ত হৃদয়ের তাপে।

কোথায় হারাল সব উদ্ভট এক করোনার তাপে!

তুমি আর কেদো নাকো ঘুরে ঘুরে

রক্তঝডা আমার এই হৃদয়ের চিডে!

You Might Also Like