করোনার ওষুধ বেমসিভির স্বাস্থ্যমন্ত্রীর কাছে হস্তান্তর

করোনা রোগীদের জন্য তৈরি ওষুধ ‘বেমসিভির’ স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেকের কাছে হস্তান্তর করেছে বেক্সিমকো।

বৃহস্পতিবার (২১ মে) দুপুরে এক হাজার রেমডিসিভির হস্তান্তর করা হয়েছে। সচিবালয়ে স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণারয়ের পক্ষে ওষুধ গ্রহণ করেন স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী জাহিদ মালেক। বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক নাজমুল হাসান পাপন ওষুধ হস্তান্তর করেন।

অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বিশ্বব্যাপী কোভিড-১৯ চিকিৎসায় বাংলাদেশের বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস প্রথম কোনও ওষুধ হস্তান্তর করায় বেক্সিমকো ফার্মাকে ধন্যবাদ জানান।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, বিশ্বের বহুদেশ কোভিড-১৯ চিকিৎসায় ওষুধ আবিস্কারের চেষ্টা করছে। বাংলাদেশ থেকেও ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর ৬টি কোম্পনিকে কোভিড-১৯ চিকিৎসা ওষুধ প্রস্তুত করতে প্রাথমিকভাবে অনুমতি দিয়েছে। এই ওষুধগুলো আরো ভালোভাবে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার পরই বাজারজাত করতে হবে। উপযুক্ত পরীক্ষা ছাড়া উৎপাদিত ওষুধগুলো এখনই বাজারজাত করা যাবে না।

উল্লেখ্য, আমেরিকায় উৎপাদিত ‘রেমডিসিভির’ ওষুধের ন্যায় বাংলাদেশের বেক্সিমকো ফার্মা কর্তৃক উৎপাদিত ওষুধের নাম ‘বেমসিভির’ করা হয়েছে। এই ওষুধ আপাতত সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসারত ঝুকিপূর্ণ কোভিড-১৯ রোগীদের শরীরে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের নির্দেশনা অনুযায়ী প্রবেশ করানো হতে পারে। একই সাথে এই ওষুধ এখনি বাজারজাত করা হবে না বলেও জানান বেক্সিমকো ফার্মার ব্যবস্থাপনা পরিচালক নাজমুল হাসান পাপন।

ওষুধ হস্তান্তর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব আসাদুল ইসলাম, স্বাস্থ্য শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. আলী নূর, ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো. মাহবুবুর রহমান, সিএমএইচডির পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ডা. মো. শহিদুল্লাসহ মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা।

You Might Also Like