‘করোনাভাইরাস ঠেকাতে মাস্ক কাজে দেয় না’

চীনের হুবাই প্রদেশের উহান শহরে গত ডিসেম্বরে প্রাদুর্ভাব ঘটা প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস কভিড-১৯ বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়েছে।

রোববার পর্যন্ত কভিড-১৯ এ বিশ্বে মৃত্যু হয়েছে ২ হাজার ৯৭৯ জনের। সবদেশই রয়েছে করোনা আতঙ্কে। এর ফলে বিশ্বব্যাপী মাস্ক ব্যবহার বেড়ে গেছে। এ কারণে বাংলাদেশে মাস্কের দাম বেড়েছে বলেও বিভিন্ন গণমাধ্যমে খবর প্রচারিত হয়েছে।

তবে ফোর্বসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, করোনা ঝুঁকির কারণে মুখে মাস্ক পরার দরকার নেই। বরং মাস্ক পরলে ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি বাড়তে পারে।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, যদি আপনার প্রতিবেশীদের কেউ কেউ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয় তবুও আপনার কোনো ধরনের মাস্ক পরার দরকার নেই।

যুক্তরাষ্ট্রের আইওয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের কলেজ অব মেডিসিনের মেডিসিন ও এপিডেমিওলজি বিভাগের অধ্যাপক এবং সংক্রমণ প্রতিরোধ বিশেষজ্ঞ এলি পেরেনসভিচ বলেন, ‘গড়পরতা স্বাস্থ্যের অধিকারী মানুষের মাস্ক পরার দরকার নেই এবং তাদের মাস্ক পরা উচিতও নয়। স্বাস্থ্যবান মানুষ মাস্ক পরলে করোনাভাইরাস থেকে রক্ষা পাবেন- এমন কোনো প্রমাণও নেই। মানুষজন ভুলভাবে মাস্ক পরে এবং এতে তাদের আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি বাড়তে পারে। কারণ মাস্ক পরার কারণে প্রায়শই তারা নিজের মুখ স্পর্শ করে। আপনি যদি জানেন যে আপনি কী করছেন এবং আপনার হাত দুটোকে সামলে রাখতে পারেন তবে আপনার মাস্কের দরকার নেই।’

তবে অসুস্থ ব্যক্তিকে মাস্ক পরতে হবে। অধ্যাপক এলি বলেন, ‘আপনি যদি অসুস্থ হন এবং ওই অবস্থায় ঘরের বাইরে যেতে হয় তবে মাস্ক পরবেন। আপনার কোনো ধরনের ফ্লু থাকলে ও সেটা কভিড সন্দেহ হলে সুস্থ মানুষের সুরক্ষার জন্য এবং বাড়িতে নিজেকে অসুস্থ মনে হলে সদস্যদের রক্ষার জন্য আপনার মাস্ক পরা উচিত।’

You Might Also Like