কক্সবাজার সদর খাদ্যগুদামের চালসহ ট্রাক জব্দ

কক্সবাজার সদর খাদ্যগুদামের ১২০ বস্তা চালসহ একটি ট্রাক জব্দ করেছে পুলিশ। বুধবার দুপুরে কক্সবাজার শহরের আলীরজাহালের মেসার্স আমির হামজা রাইস এজেন্সির সামনে থেকে এসব চাল জব্দ করা হয়।

পুলিশের দাবি, অবৈধভাবে এ চাল পাচার করা হচ্ছিল। তবে খাদ্যগুদাম কর্মকর্তা জানান, এসব চাল আনসারের। আর আনসারের দাবি তারা বিষয়টি জানেন না।

কক্সবাজার সদর থানার সহকারী উপ-পরিদর্শক খোরশেদ আলম জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শহরের আলীরজাহালের একটি চালের এজেন্সির সামনে অভিযান চালানো হয়। অভিযান চলাকালে এজেন্সির মালিকের ছেলে সরওয়ার, চাল পাচার সিন্ডিকেটের সাগরসহ বেশ কয়েকজন বাধা প্রদান করেন। পরে সরকারি চাল মজুদের পক্ষে কোনো ধরনের সঠিক তথ্য-প্রমাণ দেখাতে না পারায় ১২০ বস্তা চালসহ ট্রাকটি জব্দ করা হয়।

তিনি আরো জানান, অবৈধভাবে চাল পাচারের অভিযোগে তাজরেজা ফ্লাওয়ার মিলসের মালিক আব্দুস সোবহান, কর্মচারী সাগর, মেসার্স আমির হামজা রাইস এজেন্সির মালিক আমির হামজা ও তার ছেলে সরওয়ারসহ চাল পাচারে জড়িতদের বিরুদ্ধে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

ওই পুলিশ কর্মকর্তা আরো জানান, ওই চালগুলো আনসার ভিডিপির রেশনের চাল উল্লেখ করে পাচার করছিল। পরে সদর উপজেলা আনসার কর্মকর্তা গাজী রফিক উদ্দিন ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে ওই চালগুলো তাদের নয় বলে জানান।

আনসার ভিডিপির ওই কর্মকর্তা সাংবাদিকদের জানান, আনসারের নাম ব্যবহার করে সদর খাদ্যগুদাম কর্তৃপক্ষ চালগুলো পাচার করছিল। আনসারের পক্ষ থেকে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

তবে সদর উপজেলা খাদ্যনিয়ন্ত্রক শাহজামাল ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে বিভিন্ন কৌশলে চালগুলো রক্ষার চেষ্টা করেন। সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, এসব আনসারের রেশনের চাল। তারাই এই চাল বিক্রি করেছে। কিন্তু পরক্ষণে আনসার কর্মকর্তা উপস্থিত হলে তিনি দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন।

You Might Also Like