হোম » ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ট্রাভেলস’র ‘প্রতারণার শিকার’ ভুক্তভোগীদের জন্য সোসাইটি অফিসে অভিযোগ সেন্টার খোলা হয়েছে

ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ট্রাভেলস’র ‘প্রতারণার শিকার’ ভুক্তভোগীদের জন্য সোসাইটি অফিসে অভিযোগ সেন্টার খোলা হয়েছে

admin- Sunday, July 23rd, 2017

ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ট্রাভেলস থেকে টিকেট কিনে ‘প্রতারণার শিকার’ ভুক্তভোগী হাজারো প্রবাসীর পাশে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ সোসাইটি ইনক। ভুক্তভোগীদের জন্য সোসাইটি অফিসে অভিযোগ সেন্টার খোলা হয়েছে বলে সোসাইটির বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

সোসাইটির কার্যকরী পরিষদের সভায় ইতিপূর্বে ভুক্তভোগীদের সাথে সোসাইটির কর্মকর্তা ও বাংলাদেশী-আমেরিকান আইনজীবিদের মধ্যকার মতবিনিময়/পরামর্শ সভার পর সোসাইটির কার্যকরী পরিষদের সিদ্ধান্ত মোতাবেক ভুক্তভোগীদের পাশে থেকে সহযোগিতার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। গত ৮ জুলাই শনিবার সন্ধ্যায় অনুষ্ঠিত সোসাইটির কার্যকরী পরিষদের সভায় এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এর আগে গত ৬ জুলাই প্রতারণার শিকার ভুক্তভোগীদের সাথে সোসাইটি কার্যালয়ে মতাবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সোসাইটির সভাপতি কামাল আহমেদে’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভা পরিচালনা করেন সাধারণ সম্পাদক রুহুল আমীন সিদ্দীকি। সভায় কার্যকরী পরিষদের ১৯জন কর্মকর্তার মধ্যে ১৬জন কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন। সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ট্রাভেলসের প্রতারণার শিকার ভুক্তভোগীদের জন্য সোসাইটি অফিসে সেন্টার খোলা হয়েছে। এতে সংশ্লিস্ট সকলকে তাদের অভিযোগ সম্পর্কিত তথ্য/ডকুমেন্ট জমা দেয়ার অনুরোধ করা হয়েছে। সভায় সোসাইটির অন্যান্য সাংগঠনিক বিষয়েও আলোচনা এবং সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

সভায় কার্যকরী পরিষদের অন্যান্য কর্মকর্তাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সিনিয়র সহ সভাপতি- আব্দুর রহিম হাওলাদার, কোষাধ্যক্ষ- মোহাম্মদ আলী, সহ সাধারণ সম্পাদক- সৈয়দ এমকে জামান, সাংগঠনিক সম্পাদক- আবুল কালাম ভুইয়া, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক- মোহাম্মদ রিজু, সাংস্কৃতিক সম্পাদক- মনিকা রায়, সমাজ কল্যাণ সম্পাদক- নাদির এ আইয়ুব, ক্রীড়া ও আপ্যায়ন সম্পাদক- মোহাম্মদ এম হোসেন, স্কুল ও শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক- আহসান হাবিব, এবং কার্যকরী পরিষদ সদস্য- ফারহানা চৌধুরী, মাইনুদ্দীন মাহবুব, মোহাম্মদ আজাদ বাকির, মোহাম্মদ সাদি মিন্টু ও আবুল কাসেম চৌধুরী।

-সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

সর্বশেষ সংবাদ