এসিড আইনে ইজাহারের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন

এসিড আইনে করা মামলায় হেফাজতে ইসলাম নেতা মুফতি ইজহারুল ইসলামের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেছে আদালত। চট্টগ্রামের লালখান বাজার মাদ্রাসায় বিস্ফোরণের ঘটনায় মুফতি ইজহার ও তার ছেলে হারুন ইজহারের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ গঠন করা হয়েছে। বুধবার চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ এসএম মজিবুর রহমানের আদালতে অভিযোগ গঠন করা হয়। আগামী ১৫ জুলাই এ মামলায় পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করা হয়েছে।

চট্টগ্রাম মহানগর আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ফখরুদ্দিন চৌধুরী বলেন, আদালত মুফতি ইজাহারুল ইসলাম ও মুফতি হারুন ইজাহারের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেছেন।

এর আগে গত ৫ জুন মুফতি ইজাহার ও তার ছেলে হারুনের বিরুদ্ধে এসিড মামলায় দেয়া পুলিশের অভিযোগপত্র আমলে নেন আদালত। গত ২৮ মে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা খুলশী থানার এসআই মো. লোকমান হোসেন এ মামলার অভিযোগপত্র চট্টগ্রাম মহানগর আদালতের পুলিশ প্রসিকিউশন শাখায় জমা দেন। এতে এসিড নিয়ন্ত্রণ আইনের ৩৬ ধারায় মুফতি ইজাহার ও হারুন ইজাহারকে অভিযোগপত্রভুক্ত করা হয়। অভিযোগপত্রে ৩৪ জনকে সাক্ষী করা হয়েছে।

হেফাজতে ইসলামের নায়েবে আমির ও লালখান বাজার মাদ্রাসার পরিচালক মুফতি ইজাহার পলাতক আছেন। তবে তার ছেলে মুফতি হারুন ইজাহার গ্রেপ্তার হয়ে কারাগারে আছেন।

গত বছরের ৭ অক্টোবর নগরীর লালখান বাজারের জামেয়াতুল উলুম আল ইসলামিয়া মাদ্রাসার দারুল ইফতা ভবনের তৃতীয় তলার একটি কক্ষে বিস্ফোরণে আহত পাঁচজনের মধ্যে তিনজনের মৃত্যু হয়। এ ঘটনার পর পুলিশ বাদী হয়ে বিস্ফোরক ও এসিড আইনে দুটি এবং একটি হত্যা মামলা করে।

গত ১০ ফেব্রুয়ারি বিস্ফোরক মামলায়ও মুফতি ইজাহার ও তার ছেলে হারুনসহ নয়জনকে অভিযুক্ত করে অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ। গত ৬ এপ্রিল এই মামলায় অভিযোগ গঠন করা হয়। এছাড়া সম্পদ বিবরণীর মামলায়ও মুফতি ইজাহারের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগ শেষে সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়েছে।

You Might Also Like