হোম » উত্তর কোরিয়া যুক্তরাষ্ট্রে পরমাণু হামলা সক্ষমতার দ্বারপ্রান্তে!

উত্তর কোরিয়া যুক্তরাষ্ট্রে পরমাণু হামলা সক্ষমতার দ্বারপ্রান্তে!

ঢাকা অফিস- Saturday, October 21st, 2017

উত্তর কোরিয়া পরমাণু ক্ষেপণাস্ত্র দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের ভূখণ্ডে আঘাত হানতে সক্ষম হওয়ার দ্বারপ্রান্তে পৌঁছে গেছে বলে সতর্ক করেছে মার্কিন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা (সিআইএ)।

সিআইএর পরিচালক মাইক পম্পেও এই সতর্কবার্তা উচ্চারণ করে বলেছেন, ‘ওয়াশিংটন এখনো উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে সমস্যা সমাধানে কূটনৈতিক তৎপরতা এবং নিষেধাজ্ঞাকে প্রাধান্য দিয়ে আসছে। তবে সামরিক পদক্ষেপও বিকল্প হিসেবে হাতে রাখা হয়েছে।’

ওয়াশিংটনে বৃহস্পতিবার ‘ফাউন্ডেশন ফর ডিফেন্স অব ডেমোক্রেসিস’ শীর্ষক এক অনুষ্ঠানে পম্পেও বলেন, ‘উত্তর কোরিয়া এখন পরমাণু বোমা হামলার সক্ষমতা অর্জনের অনেক কাছে চলে এসেছে। আগামী কয়েক মাসের মধ্যে দেশটি এ সক্ষমতা অর্জন করতে পারে।’

পিয়ংইয়ংয়ের ক্ষেপণাস্ত্র বিশেষজ্ঞরা এত দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছেন যে, তারা কখন সক্ষমতা অর্জন করে ফেলবে মার্কিন গোয়েন্দাদের পক্ষে তা বোঝা মুশকিল উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘এখন আমাদের চিন্তা করতে হবে কীভাবে তাদের এ অর্জনের চূড়ান্ত পর্যায় থামিয়ে দেওয়া যায়।’

এর আগে উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচি নিয়ে গত সপ্তাহে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন বলেছিলেন, ‘উত্তর কোরিয়াকে কেন্দ্র করে সমস্যার সমাধান কূটনেতিক উপায়েই করতে চাইছেন তারা।’ যদিও প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছিলেন, উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উনের সঙ্গে আলেচনায় বসার চেষ্টা করে সময় নষ্ট করার কোনো মানে হয় না।
প্রসঙ্গত, উত্তর কোরিয়া ইতোমধ্যেই যুক্তরাষ্ট্রের মূল ভূখণ্ডে আঘাত হানার সক্ষমতা অর্জন করেছে বলে দাবি করেছে। দেশটি গত ৩ সেপ্টেম্বর একটি হাইড্রোজেন বোমা পরীক্ষা করার কথা জানিয়েছে।

মাটির নিচে ঘটানো এ বিস্ফোরণের ফলে ৬ দশমিক ৩ মাত্রার যে ভূমিকম্প হয় তা চীন থেকেও অনুভব করা গেছে। বলা হচ্ছে, ১০০ কিলোটন ক্ষমতাসম্পন্ন ওই বোমাটি ছিল উত্তর কোরিয়ার পরীক্ষা করা এ পর্যন্ত সবচেয়ে শক্তিশালী বোমা।

আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও গত দুই মাসে উত্তর কোরিয়া একাধিক আন্তঃমহাদেশীয় ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করেছে, যার একটি জাপানের ওপর দিয়ে উড়ে গিয়ে প্রশান্ত মহাসাগরে পড়েছে। তারা প্রশান্ত মহাসাগরে গুয়াম দ্বীপে মার্কিন সামরিক ঘাঁটির দিকে ক্ষেপণাস্ত্র ছোঁড়ার হুমকিও দেয়।