হোম » উচ্চক্ষমতার রকেট ইঞ্জিন পরীক্ষা উত্তর কোরিয়ার

উচ্চক্ষমতার রকেট ইঞ্জিন পরীক্ষা উত্তর কোরিয়ার

ঢাকা অফিস- রবিবার, মার্চ ১৯, ২০১৭

উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, তাদের সামরিক বাহিনী উচ্চক্ষমতার রকেট ইঞ্জিনের সফল পরীক্ষা চালিয়েছে।

দেশটির রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা কেসিএনএ জানিয়েছে, তাদের শাসক কিম জং-উন ঘোষণা দিয়েছেন, এই পরীক্ষার মধ্য দিয়ে উত্তর কোরিয়ার রকেট ইন্ডাস্ট্রির ‘নতুন জন্ম’ হলো।

বিবিসি অনলাইনের এক খবরে রোববার এ তথ্য জানানো হয়েছে।

কিম জং-উন বলেছেন, এই ইঞ্জিনের মাধ্যমে উত্তর কোরিয়া বিশ্বমানের স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণের সক্ষমতা অর্জন করল।

উত্তর কোরিয়া এমন সময় রকেট ইঞ্জিন পরীক্ষায় সফলতার দাবি করল, যখন দেশটি নিয়ে চীনের সঙ্গে আলোচনা করছে যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন এখন চীনে রয়েছেন। রোববার চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সঙ্গে বৈঠক করার কথা রয়েছে তার।

রকেট পরীক্ষা ব্যক্তিগতভাবে পর্যবেক্ষণ করেছেন কিম জং-উন। উত্তর কোরিয়ার কাছ থেকে বিশ্ব নতুন কিছু দেখবে বলে উল্লেখ করেন তিনি। রকেট পরীক্ষার সফলতার এই দিনকে উত্তর কোরিয়া রকেট ইন্ডাস্ট্রির জন্মদিন হিসেবে উদযাপন করবে।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী টিলারসনের পূর্ব এশিয়া সফরে উত্তর কোরিয়া নিয়ে উদ্বেগ গুরুত্ব পেয়েছে। বিশেষ করে দেশটির পরমাণু অস্ত্রের কার্যক্রম এই উদ্বেগের কারণ। দক্ষিণ কোরিয়া সফরে টিলারসন বলেছেন, উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে প্রয়োজনে সামরিক ব্যবস্থা নেবে যুক্তরাষ্ট্র।

উত্তর কোরিয়া এমন পরমাণু ক্ষেপণাস্ত্র তৈরি করছে, যা যুক্তরাষ্ট্রে আঘাত করতে সক্ষম। এ ছাড়া স্বল্প ও মাঝারি পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র দক্ষিণ কোরিয়া ও জাপানে সহজেই আঘাত করতে পারবে। ফলে উত্তর কোরিয়ার পরমাণু কার্যক্রম নিয়ে যথেষ্ট উদ্বেগে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্ররা।

সম্প্রতি উত্তর কোরিয়া জাপান সাগরে একসঙ্গে চারটি বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করে। এর মধ্যে তিনটি জাপানের বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে গিয়ে পড়ে।

এর প্রতিক্রিয়ায় দক্ষিণ কোরিয়ায় ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা মোতায়েন করেছে যুক্তরাষ্ট্র। কিন্তু এ পদক্ষেপকে ভালোভাবে নেয়নি উত্তর কোরিয়ার প্রধান মিত্র চীন।