ঈদে লঞ্চঘাটে থাকবে বাড়তি তদারকি

পিনাক-৬-এর মতো দুর্ঘটনা এড়াতে পবিত্র ঈদুল আজহার আগে ও পরে এবার লঞ্চঘাটগুলোতে অতিরিক্ত তদারকির ব্যবস্থা করা হবে বলে জানিয়েছে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়।

আজ রবিবার ঈদ সামনে রেখে নৌপথে চলাচলবিষয়ক এক সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে রাজধানীর একটি রেস্তোরাঁয় এ সভা চলছে।

সভায় নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান, অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ, অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন সংস্থা, সংশ্লিষ্ট জেলা ও পুলিশ প্রশাসন এবং শ্রমিক ফেডারেশনের প্রতিনিধিরা উপস্থিত রয়েছেন।

এবার পবিত্র ঈদুল আজহা ও শারদীয় দুর্গাপূজা প্রায় একসঙ্গে উদযাপিত হবে। বড় এই দুই উৎসবে সড়ক ও নৌপথে বাড়তি চাপ থাকবে।

সভায় শ্রমিক ফেডারেশন অভিযোগ করে, অনেক ফেরিঘাটে যানবাহনপ্রতি বেশি টাকা নেওয়া হয়। নিয়ম অনুসারে ৪০ টাকা দেওয়ার কথা থাকলেও আদায় করা হয় ৬০০ থেকে ১ হাজার টাকা। যারা বেশি টাকা দেয়, তাদের আগে যেতে দেওয়া হয়। রাজবাড়ী, চাঁদপুর, শরীয়তপুর, মানিকগঞ্জ ও মাদারীপুরে এ ঘটনা বেশি ঘটে। এ কারণে ধারাবাহিকতা নষ্ট হয়ে যানজটের সৃষ্টি হয়।

এই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ফেরিঘাটগুলোতে যাতে সিরিয়াল না ভাঙে, সেদিকে বিশেষ নজর দেওয়া হবে বলে জানানো হয়।

সভায় আরও জানানো হয়, সার্বিক চলাচল সুষ্ঠু করতে মন্ত্রণালয়, নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ, অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন সংস্থা, সংশ্লিষ্ট জেলা ও পুলিশ প্রশাসন সমন্বিতভাবে কাজ করবে।

You Might Also Like