Uncategorized

ইয়েমেনে সৌদি বিমান হামলায় ২৩ বেসামরিক লোক নিহত

ইয়েমেনের উত্তরাঞ্চলে সৌদি আরবের নেতৃত্বাধীন সামরিক জোটের হামলায় নারী ও শিশুসহ ২৩ বেসামরিক লোক নিহত হয়েছে।

উত্তরাঞ্চলীয় সাদা শহরের স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রধান আবদেল এলাহ আল-এজি বলেছেন, শুক্রবার শহরের বিভিন্ন এলাকায় বিমান হামলা চালানো হয়েছে। ইরান-সমর্থিত শিয়া সম্প্রদায়ের হুতি বিদ্রোহীদের শক্তিশালী ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত সাদা।

বিদ্রোহীদের পরিচালিত সংবাদ সংস্থা সাবা-এর এক খবরে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে বলা হয়েছে, এ ঘটনা প্রতিশোধ পরায়ন হয়ে উঠতে পারে।

ইয়েমেনে আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃতি প্রেসিডেন্ট আব্দ রাব্বু মানসুর হাদির সরকারের সমর্থনে ২০১৫ সালের মার্চ মাস থেকে সৌদি আরবের নেতৃত্বাধীন সামরিক জোট হুতিদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ শুরু করে। মানসুর হাদির সরকার সুন্নিপন্থি। ক্ষমতার ভাগাভাগি নিয়ে তার সরকারের বিরুদ্ধে ফুঁসে ওঠে হুতিরা। দুই বছরের এই যুদ্ধে কমপক্ষে ১২ হাজার মানুষ নিহত হয়েছে এবং উদ্বাস্তু হয়েছে কয়েক লাখ বেসামরিক লোক।

সম্প্রতি ইয়েমেনের বিরুদ্ধে চতুর্মুখী অবরোধ আরোপ করেছে সৌদি আরব ও তার ঘনিষ্ট মিত্ররা। ফলে আন্তর্জাতিক বিমান পরিবহন ব্যবস্থা করে ইয়েমেনে দুর্ভিক্ষপ্রবণ এলাকাগুলোতে ত্রাণ পাঠাতে পারছে না দাতাসংস্থাগুলো। শুক্রবার শিগগিরেই অবরোধ প্রত্যাহার করে নিতে সৌদি আরবের প্রতি যুক্তরাষ্ট্র আহ্বান জানিয়েছে। তবে সৌদি কর্তৃপক্ষ এখনো এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করেনি।

জাতিসংঘ হুঁশিয়ার করে বলেছে, যদি অবরোধ তুলে নেওয়া না হয়, তাহলে ইয়েমেনে প্রায় ১০ লাখ লোক আনাহার ও চিকিৎসার অভাবে মারা যাবে। ভয়াবহ এ পরিণতি এড়াতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের পদক্ষেপ চেয়েছে জাতিসংঘ।

তথ্যসূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস