ইসরায়েলের বাসস্টেশনে হামলায় ইসরায়েলি সেনা নিহত

ইসরায়েলের বীরশেবা বাসস্টেশনে হামলায় একজন ইসরায়েলি সেনা নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন চার ইসরায়েলি সেনাসহ কমপক্ষে ১১ জন।

রোববারের এ হামলার ঘটনায় ফিলিস্তিনি নাগরিক জড়িত উল্লেখ করে ইসরায়েলি পুলিশ জানায়, আক্রমণকারী এক ইসরায়েলি সেনাকে ছুরিকাঘাত করে এবং তার অস্ত্র চুরি করে। এরপর আক্রমণকারী ব্যক্তি বাসস্টেশনে অবস্থানরত জনতাকে লক্ষ্য করে গুলি চালাতে থাকে। এ সময় একজন ইসরায়েলি সেনা আহত হন।

ইসরায়েলি পুলিশের বরাত দিয়ে সোমবার এ খবর জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম।

আহত ইসরায়েলি সেনাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সময় তিনি নিহত হন বলে জানায় ইসরায়েলি পুলিশ।

এ ঘটনার পর ইসরায়েলি নিরাপত্তা বাহিনী হামলাকারী ভেবে একজন ফিলিস্তিনি ও ইরিত্রিয়ার এক নাগরিককে গুলি করে। ফিলিস্তিনি নাগরিক ঘটনাস্থলেই মারা যান।

এদিকে ইসরায়েলি সংবাদ মাধ্যমকে পুলিশ জানিয়েছে ভুলবশত ইরিত্রিয়ার নাগরিককে গুলি করা হয়েছে।

একটি ভিডিও ফুটেজে দেখা যায় আহত ওই ইরিত্রীয় গুলিবিদ্ধ হওয়ার পর মেঝেতে পরে গেলে নিরাপত্তা বাহিনীর উপস্থিতিতে কয়েকজন ইসরায়েলি তাকে লাথি মারতে থাকে। এরপর তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এর আগে গত শনিবার ইসরায়েলি পুলিশের হামলায় ৫ জন ফিলিস্তিনি নিহত হন।

পবিত্র আল-আকসা মসজিদকে কেন্দ্র করে শুরু হওয়া ইসরায়েল ফিলিস্তিনির এ সংঘাত প্রতিদিনই আগের দিনের চেয়ে আরও বেশি উত্তপ্ত হয়ে উঠছে। সহিংসতা ব্যাপক আকার ধারণ করছে।

এর বিপরীতে আরও কঠোরভাবে প্রয়োগ করা হচ্ছে ইসরায়েলি দমননীতি। ফলে হতাহতের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। এরই ধারায় এ নিয়ে ৪৪ জন ফিলিস্তিনি ও ৮ ইসরায়েলির মৃত্যু হলো।

You Might Also Like