হোম » ইন্টারন্যাশনাল ইউনাইটেড সীরাত কনভেনশন ৮ এপ্রিল : প্রস্তুতি কমিটি গঠন

ইন্টারন্যাশনাল ইউনাইটেড সীরাত কনভেনশন ৮ এপ্রিল : প্রস্তুতি কমিটি গঠন

admin- Tuesday, March 7th, 2017

মমিন মজুমদার : আমেরিকান মুসলিম সেন্টার (এএমসি)’র আয়োজনে ইন্টারন্যাশনাল ইউনাইটেড সীরাত কনভেনশন-২০১৭ আগামী ৮ এপ্রিল শনিবার অনুষ্ঠিত হবে জ্যামাইকার সুসান বি এন্থোনী একাডেমী মিলনায়তনে। গত ৩ মার্চ শুক্রবার জ্যামাইকা মসজিদ মিশন (হাজী ক্যাম্প মসজিদে) প্রস্তুতি সভায় এএমসি’র প্রেসিডেন্ট হাফিজ মাওলানা রফিকুল ইসলাম এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, “গ্লোবাল প্রফেট, গ্লোবাল উম্মাহ ইউনাইডেট মুসলিম মিল্লাহ”র বিশ্ব ঘোষণার মহা আয়োজন ‘ইন্টারন্যাশনাল ইউনাইটেড সীরাত কনভেনশনে’ প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন ইউনাইডেট গ্লোবাল ফামের্সীর চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আমির খান। আলোচক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ থেকে আগত এটিএন বাংলা’র ভাইস প্রেসিডেন্ট বিশিষ্ট ইসলামিক স্কলার মাওলানা তারেক মনোয়ার, ইসলামিক স্কলার ও টিভি ব্যক্তিত্ব সাইয়্যেদ কামাল উদ্দিন জাফরী, লন্ডল আল কোরআর একাডেমীর পরিচালাক হাফিজ মনিরউদ্দিন আহমেদ, স্থানীয় উলামাদের মধ্যে বক্তব্য রাখবেন, টেক্সাস ইসলামিক সেন্টারের খতিব মুফতি মোজাম্মেল হোসাইন ফারুকী, আল বাসিরাহ ইসলামিক সেন্টারের প্রেসিডেন্ট শায়খ আব্দুল নাসির জ্যান্ডা ও জ্যামাইকা ইসলামিক সেন্টারের খতিব মাওলানা মীর্জা আবু জাফর বেগসহ আরো অনেকে। দুই পর্বে সাজানো কনভেনশনের প্রথম পর্ব ইংরেজী আলোচনা শুরু হবে বিকাল ৪ টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত। দ্বিতীয় পর্ব বাংলা আলোচনা শুরু হবে সন্ধ্যা ৭ টা থেকে রাত ১০ টা পর্যন্ত। এতে মহিলাদের বসার ব্যবস্থা ছাড়াও থাকবে খাবারের আয়োজন। কনভেনশনে প্রবেশে কোন এডমিশন ফি নেই বলে জানান হাফিজ রফিকুল ইসলাম।

প্রস্তুতি সভা এএমসি’র অন্যতম সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মহিব্বুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। এতে কনভেনশনের উদ্দেশ্য ও কর্মপরিকল্পনা তুলে তুলে ধরেন সুন্নতি হজ্ব ও উমরাহ গ্রুপ ইউএসএ’র আমির বিশিষ্ট আলেম মুফতি আব্দুল মালেক আল মাদানী। তিনি বলেন, মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা:) শেষ নবী। তাঁহার পর আর কোন নবী আসবেনা এটাই শ্বাসত সত্য। কিন্তু একটা শ্রেণী রাসুল (সা:) কে শেষ নবী হিসেবে মানতে নারাজ। এমন অপ্রচার থেকে আমাদের সন্তানসহ মুসলমানদের ঈমান-আকিদা রক্ষার তাগিদে আমরা ‘ইন্টারন্যাশনাল ইউনাইটেড সীরাত কনভেনশন’ এর আয়োজন করি আমেরিকান মুসলিম সেন্টার (এএমসি)’র ব্যানারে। তিনি বলেন, আমরা চাই  নবী (সা:) জিন্দেগীর উপর ব্যাপক প্রচার ও প্রসার হোক। এতে করে আমাদের সন্তানরাসহ মুসলিম কমিউনিটি উপকৃত হবে। তিনি এএমসি’র এ অগ্রযাত্রাকে আরো সমৃদ্ধি ও সুন্দর করতে কমিউনিটি নেতৃবৃন্দ ও মিডিয়ার সহযোগিতা কামনা করে বলেন, সংখ্যায় নয়, প্রজ্ঞার মাধ্যমে আমাদের শ্রেষ্ঠত্বের প্রমাণ দিতে হবে। নবী করিম (সা:) এর শানের এ আয়োজন কখনো ব্যর্থ হয়নি। শুরু থেকে আমরা এর ব্যাপক সফলতা দেখেছি। এ বারও ইনশাল্লাহ আমরা সফল হবো। এ ক্ষেত্রে কমিউনিটির সকলের দোয়া, পরামর্শ ও সহযোগিতা কামনা করেন এ আলেমে দ্বীন।

সভায় বিভিন্ন পরার্মশ ও সহযোগিতার প্রতিশ্রুতি দিয়ে বক্তব্য রাখেন, রিচমন্ডহিল বায়তুল গাফফার মসজিদের খতিব মাওলানা মাসুক আহমেদ, মাওলানা আতাউর রহমান, মাওলানা মঞ্জুরুল কারীম, মাওলানা আব্দুর রহিম, মাওলানা মারুফ রশিদ, বিশিষ্ট সাংবাদিক কাজী শাসসুল হক, সাংবাদিক মমিনুল ইসলাম মজুমদার, কমিউনিটি লিডার জাহাঙ্গীর আলম, প্রফেসর সালাহ উদ্দিন, শেখ জালাল উদ্দিন, মোস্তফা কামাল, আক্তার হোসন, তাজমুল চৌধুরী, মোহাম্মদ ইসলাম, দুলাল মিয়াসহ আরো অনেকে। আলোচনা শেষে সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার মহিব্বুর রহমান উপস্থিত সকলের সম্মতিত্রুমে কনভেনশন বাস্তবায়নের ২৫ হাজার ডলারের বাজেট পেশ করেন এবং বিভিন্ন বিভাগে দায়িত্ব বন্টন করেন।

মতবিনিময় সভা ২৪ মার্চ

‘ইন্টারন্যাশনাল ইউনাইটেড সীরাত কনভেনশন’ বাস্তবায়নের লক্ষে কমিউনিটির নেতৃবন্দ, ইমাম, আলেম-উলামা, সাংবাদিকসহ বিভিন্ন পেশাজীবির সম্মানে মতবিনময় সভার আয়োজন করেছে এএমসি’র কর্তৃপক্ষ। আগামি ২৪ মার্চ শুত্রুবার, মাগরিবের নামাজের পর মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হবে জ্যামাইকা মসজিদ মিশন (হাজী ক্যাম্প মসজিদে)। এতে নবী প্রেমিক সকলকে যথাসময়ে উপস্থিত থাকার জন্য আয়োজক সংগঠনের পক্ষ থেকে আহবান জানানো হয়েছে।