ইডেন কলেজে নেত্রীকে পেটালো নেত্রী

মতের মিল না হওয়ায় রাজধানীর ইডেন মহিলা কলেজ ছাত্রলীগের বিলুপ্ত কমিটির প্রচার সম্পাদক মুনমুন নাহার বৈশাখীকে পিটিয়েছে বিলুপ্ত কমিটির সাধারন সম্পাদক ইসরাত জাহান অর্চি।

রোববার দুপুরের দিকে কলেজের রাজিয়া হলে এ ঘটনা ঘটে।

কলেজের বাংলা বিভাগের ৪র্থ বর্ষের এক শিক্ষার্থী জানান, বছরখানেক ধরেই ইডেন কলেজ শাখা ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত। তারপরও বিলুপ্ত কমিটির সভাপতি নাজনীন নাহার নীপা ও সাধারণ সম্পাদক ইসরাত অর্চিই সেখানকার হর্তাকর্তা। এই দুজন ক্যাম্পাসে অত্যন্ত দাপট দেখিয়ে আসছেন। তাদের মতের বিরুদ্ধে কেউ গেলে তার উপর নির্যাতন চালান তারা। কলেজের সাধারণ ছাত্রী থেকে শুরু করে নিজ দলীয় নেতাকর্র্মীদেরকে তুচ্ছ অজুহাতেই পেটানোর অভিযোগ বারবারই পাওয়া যায় তাদের বিরুদ্ধে।

মুনমুন নাহার বৈশাখীর সঙ্গে মতের মিল না হওয়ায় রোববার ইসরাত অর্চি কলেজের রাজিয়া হলের ৩০৭ নম্বর রুমে (নিজকক্ষ) বৈশাখীকে আটকে রেখে প্রহার করেন।

বিষয়টি অস্বীকার করে ইসরাত জাহান অর্চি বলেন, ‘আমার সঙ্গে কারো কোন ঝামেলা হয় নি। আমি কাউকে মারধর করি নি। মূলত ছাত্রলীগের রাজনীতি থেকে আমাকে মুছে দেওয়ার জন্য এসব আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র ছাড়া আর কিছুই না।’

জানতে চাইলে কলেজের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক হোসনে আরা বেগম বলেন, ‘বিষয়টি জানতে পেরেছি। খোঁজ নিয়ে এ ব্যাপারে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

উল্লেখ্য, মতের অমিল হওয়ায় এর আগেও এক ছাত্রীকে সারারাত রুমে আটকে রেখে মারধর করেন ছাত্রলীগের বিলুপ্ত কমিটির সভাপতি নাজনীন নাহার নিপা। এছাড়া ছয় ছাত্রীকে মারধর করে কলেজ থেকে বের করে দেয়ার ঘটনাও ঘটেছে।

You Might Also Like