ইজ্জতের মূল্য ১০ হাজার টাকা!

এক অসহায় নারী, চাশ্রমিক। স্বামী হারিয়েছেন পাশবিক নির্যাতনের চেষ্টাকারী রশিদের কারণে। এ অভিযোগের বিচার চেয়ে স্থানীয় সালিসের কাছে প্রথমে ধরনা দিয়েও কোনো বিচার না পেয়ে আইনি সহযোগিতা নিতে লিখিত অভিযোগ করেন থানায়। অভিযোগ দেয়ার এক দিন পরে ঘটনার তদন্ত করেন কুলাউড়া থানা পুলিশের এসআই আকলিমা আক্তার। পুলিশ ঘটনা তদন্তের মাত্র এক দিন পরই স্থানীয় মাতব্বর নামধারী একটি চক্র নামে সালিস বাণিজ্যে। অভিযুক্তকে বাঁচাতে মরিয়া হয়ে উঠে তারা। স্থানীয় সালিসদারদের ম্যানেজ করে ওই চক্র এবং সালিসবাণিজ্যের নামে মোটা অঙ্কের টাকা হাতিয়ে নেয় তারা। কিন্তু সালিস বৈঠকে ঘটনার জন্য দায়ী ব্যক্তিকে জরিমানা করা হয় মাত্র ১০ হাজার টাকা ! বৃহস্পতিবার রাতে অনুষ্ঠিত সালিসে দরিদ্র ওই নারী শ্রমিকের ইজ্জতের মূল্য ১০ হাজার টাকা নির্ধারণ করে সমঝোতার ঘটনায় সমলোচনা হচ্ছে কুলাউড়ায়।

You Might Also Like