ইউ এস কাউন্সিল অব মুসলিম অর্গানাইজেশন’র যাত্রা শুরু

ইমরান আনসারী : আমেরিকার মুসলামানদের শীর্ষস্থানীয় ১০ টি সংগঠন বিভিন্ন ইস্যুতে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার উদ্দেশ্যে একটি কাউন্সিল গঠন করেছে। এই উদ্যোগকে যুক্তরাষ্ট্রের মুসলমানদের ইতিহাসে ঐতিহাসিক অধ্যায় বলে উল্লেখ করেছেন কংগ্রেসম্যান এন্ড্রি কার্সন। গত ১০ জুন মঙ্গলবার ওয়াশিংটনের হোটেল হিলটনে আয়োজিত ইউএস কাউন্সিল অব মুসলিম অর্গানাইজেশনের শুভ যাত্রা উপলক্ষ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানে একথা বলেন তিনি। মুসলমানদের অধিকার আদায়ে এ কাউন্সিল শক্তিশালী ভূমিকা পালন করবে বলে মনে করেন তিনি। অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে আরেক কংগ্রেসম্যান কেইথ এলিসন বলেন, ৭টি বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠীর মুসলমান ঐক্যবদ্ধ হবার ঘোষণা প্রমান করে ইসলাম রেসিজমের বিরুদ্ধে। ইউএস কাউন্সিল অব মুসলিম অর্গানাইজেশন-এর প্রতিষ্ঠাকালীন সদস্য হিসেবে যে ৭টি সংগঠন যোগ দিয়েছে সেগুলো হচ্ছে- এম্পাওয়ারম্যান্ট থ্রো এডুকেশন এন্ড একশন, ইসলামিক সার্কেল অব নর্থ আমেরিকা, মুসলিম উম্মাহ অব নর্থ আমেরিকা, দ্যা মসক কেয়ার, মুসলিম আমেরিকান সোসাইটি, কাউন্সিল অন আমেরিকান ইসলামিক রিলেশন, মুসলিম লিগাল ফান্ড অব আমেরিকা, ইসলামিক শুরা কাউন্সিল অব সাউথ ক্যালিফোর্নিয়া, ইউনাইটেড মুসলিম রিলিফ, ইলামিক সেন্টার অব ওহেটন।  ১০  সদস্য বিশিষ্ট এ কাউন্সিলে মুসলিম উম্মাহ অব নর্থ আমেরিকার পক্ষে প্রতিনিধিত্ব করেন বাংলাদেশী বংশোদ্ভুত ইমাম দেলোয়ার হোসাইন। অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন যুক্তরাষ্ট্রের কেন্টাকি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. ইহসান বাগভী। মূল প্রবন্ধে ড. বাগভী আমেরিকায় ইসলামের আগমন, বিকাশ ও ভবিষ্যত করণীয় প্রশ্নে একটি দিক নির্দেশনা তুলে ধরেণ। সদস্যভূক্ত সংগঠনের নেতারা জানান, ২০১৪ সালের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের মুসলমানদের আদম শুমারী শেষ করা হবে। পাশাপাশি ২০১৬ সালে আমেরিকান মুসলমানদের একটি কনভেনশন আহ্বান করা হবে।

You Might Also Like