আল-আকসা মসজিদ খুলে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে ইসরায়েল

জেরুজালেমে মুসলিমদের দ্বিতীয় প্রধান ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান আল-আকসা মসজিদের কম্পাউন্ড বন্ধের কয়েক ঘণ্টা পর খুলে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে ইসরায়েল। এক ইহুদি গুলিতে আহত হওয়ার জেরে বৃহস্পতিবার এটি বন্ধ করে তেলআবিব। কিন্তু এ সিদ্ধান্ত ‘যুদ্ধ ঘোষণার শামিল’ বলে ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস হুঁশিয়ারি দেওয়ার এক দিন পর শুক্রবার এটি ফের খুলে দেওয়ার কথা জানান ইসরায়েলি অর্থমন্ত্রী নাফতালি বেনেত।

মসজিদটি মুসলিম ও ইহুদি উভয়ের কাছে এটি পবিত্র স্থান হিসেবে পরিচিত। এটির একটি অংশকে হারাম শরীফ বলেন মুসলিমরা, আর অন্য অংশটিকে টেম্পল মাউন্ট বলে থাকেন ইহুদিরা। প্রতি বছর বিশ্বের হাজারো মুসলিম ও ইহুদিরা স্থানটিতে ভ্রমণ করেন।

শুক্রবার নাফতালি বেনেত বিবিসিকে জানান, পবিত্র স্থান টেম্পল মাউন্ট জনসাধারণের প্রবেশের অনুমতি দিতে এটি খুলে দেবে ইসরায়েল সরকার। আমার জানা মতে, সেখানে যদি কয়েক ঘণ্টার মধ্যে আর কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে, তাহলে সর্বসাধারণের জন্য শিগগিরই এটি খুলে দেওয়া হবে বলে আমি প্রত্যাশা করি।

বুধবার আল আকসা মসজিদ কম্পাউন্ডে এক ইহুদি অধিকারকর্মী আহত হয়। এ জেরে ইসরায়েলি পুলিশ এক ফিলিস্তিনিকে গুলি করে হত্যা করে। এ ঘটনা নিয়ে ফিলিস্তিনি ও ইসরায়েলিদের মধ্যে তীব্র অসন্তোষ সৃষ্টি হয়।

এ ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেন ফিলিস্তিনি প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস। মসজিদ বন্ধকে যুদ্ধ ঘোষণার শামিল বলে অভিহিত করেন তিনি। বিশ্ব নেতারাও এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন।
বৃহস্পতিবার মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরি এ ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেন। তিনি দ্রুতই পবিত্র ভূমিটি খুলে দেওয়ারও আহ্বান জানান।

তথ্যসূত্র : বিবিসি।

You Might Also Like