আলোচনা ব্যর্থ : গ্যাস সংযোগ কেটে দিচ্ছে রাশিয়া

ইউরোপীয় ইউনিয়নের মধ্যস্থতায় রাশিয়া এবং ইউক্রেনের মধ্যকার আলোচনা কোনো সমঝোতা ছাড়াই শেষ হয়েছে। সে কারণে আগামী কয়েক ঘণ্টার মধ্যে ইউক্রেনে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করে দেয়ার হুমকি দিয়েছে রাশিয়া। দু’দিনের এ আলোচনা ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভে অনুষ্ঠিত হয় এবং গতকাল (রোববার) তা শেষ হয়েছে।

 মস্কো বলছে, আজকের মধ্যে ইউক্রেন পাওনা পরিশোধ না করলে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করে দেয়া হবে। মস্কোর এ ঘোষণা বাস্তবায়িত হলে তীব্র গ্যাস সংকটের মুখে পড়বে ইউক্রেন। দেশটির মোট গ্যাস চাহিদার শতকরা প্রায় ৫০ ভাগ পূরণ করে রাশিয়া। মস্কো আগেই ইউক্রেনকে বকেয়া পরিশোধের জন্য ১৬ জুন সময় বেধে দিয়েছিল।

 রাশিয়ার সবচেয়ে বড় সরকারি গ্যাস কোম্পানি গজপ্রমের মুখপাত্র সের্গেই কুপ্রিয়ানভ বলেছেন, আজকের মধ্যে ইউক্রেনকে মোট পাওনার মধ্য থেকে অন্তত ১৯৫ কোটি ডলার পরিশোধ করতে হবে। এ বিষয়ে অনেক দিন থেকেই কিয়েভকে বলা হচ্ছে কিন্তু তারা রাশিয়ার বক্তব্য আমলে নেয়নি। কিয়েভের কাছে গ্যাস বাবদ রাশিয়ার মোট পাওনা হচ্ছে ৫২০ কোটি ডলার।

 কুপ্রিয়ানভ জানান, গজপ্রমের প্রতিনিধিরা কিয়েভ ছেড়েছেন সে কারণে আজকের মধ্যে বকেয়া বিল পরিশোধের সম্ভবনা নেই।

 এদিকে, ইউরোপীয় কমিশন এক বিবৃতিতে বলেছে, দু’পক্ষ নতুন করে বৈঠকে বসলে এ সংকট সমাধান করা এখনো সম্ভব।

You Might Also Like