হোম » আমরা নিজেদের শ্রম-মেধা দিয়ে কাজ করে যাব : শেখ হাসিনা

আমরা নিজেদের শ্রম-মেধা দিয়ে কাজ করে যাব : শেখ হাসিনা

ঢাকা অফিস- Wednesday, January 13th, 2016

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘আমরা কারো কাছে হাত পাতব কেন? আমরা নিজেদের শ্রম-মেধা দিয়ে কাজ করে যাব।’ একইসঙ্গে নিজেদের মেধা, শ্রম কাজে লাগিয়ে বাংলাদেশ স্বনির্ভর হবে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

বুধবার রাজধানীর খামারবাড়ীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশনে দুগ্ধ উৎপাদন ও কৃত্রিম প্রজনন খাতে ঋণ বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘কারো কাছে অর্থ চেয়ে না, আমরা নিজস্ব অর্থায়নে কৃষকদের ভর্তুকি দিতে শুরু করি। দেশে বহু বর্গাচাষি আছে, যারা বর্গা চাষ করে তারা কীভাবে উৎপাদন করবে। সে জন্য তারা কোনো ঋণ পেত না। কারণ তারা কোনো জামানত রাখতে পারত না। প্রথমবার আমরা সরকারে এসে বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংকের মাধ্যমে বিনা জামানতে অল্প সুদে বর্গাচাষিদের জন্য কৃষিঋণ দিতে শুরু করি। আমরা কর্মসংস্থান ব্যাংক তৈরি করি। যেন যুবসমাজ নিজের পায়ে দাঁড়াতে পারে। তাদেরও বিনা জামানতে ঋণ দেয়া শুরু করি। একটা ছেলে বেকার থাকবে কেন? এই ঋণ নিয়ে সে নিজের পায়ে দাঁড়াবে। এক ইঞ্চি জমি যেন অনাবাদি না থাকে সে জন্য আমরা নানা পদক্ষেপ নিচ্ছি।’

দেশে খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতার কারণে এখন বিপুল পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা বেঁচে যাচ্ছে বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী।

এ সময় খাঁটি দুধের নানা প্রয়োজনীয়তার কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, অনেক মুসলিম দেশ আছে যারা অন্যান্য দেশ থেকে হালাল মাংস কেনে। বাংলাদেশ তাঁর বিপুল পরিমাণ চরাঞ্চল ব্যবহার করে গরু-মহিষের খামার তৈরি করে এই মাংস রপ্তানির ক্ষেত্রটিকে কাজে লাগাতে পারে বলেও মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী।