আধিপত্য নিয়ে অস্ত্রের মহড়া, ১০ গাড়ি ভাঙচুর

আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে চাঁদপুরে আবারো সহিংসতা শুরু হয়েছে। ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাদের আধিপত্য নিয়ে শহরে ৩/৪ দিন ধরে শিশু-কিশোরদের অস্ত্রের মহড়া ও সংঘর্ষ হচ্ছে। এতে সাধারণ মানুষের মধ্যে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে।

সোমবার সন্ধ্যার পর কাজ না থাকলে শহরের লোকজন বাস-বাড়িতে চলে যাচ্ছে। শহরে বিরাজ করছে ভূতুড়ে পরিবেশ।

এসময় শহরের বিভিন্ন স্থানে সিনিয়র-জুনিয়রদের অস্ত্রের মহড়ায় আতঙ্কিত হয়ে পড়ে সাধারণ জনগণ। শহরের শপথ চত্বর, গনি স্কুলের মোড়, ক্যাফে কর্নারের মোড়, শহীদ মুক্তিযোদ্ধা সড়কসহ বিভিন্ন স্থানে শতাধিক শিশু-কিশোর বিভিন্ন ধরনের অস্ত্র নিয়ে দৌড়া-দৌড়ি শুরু করে। এর মধ্যে প্রত্যেকের হাতে দেশীয় অস্ত্র দেখা যায়।

রাত সাড়ে ৮টার দিকে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সের সামনে থাকা জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার এমএ ওয়াদুদের গাড়িসহ ১০টি যানবাহন ভাঙচুর করে তারা। পুলিশ ধাওয়া করে এসময় ৪ জনকে আটক করে। রাত প্রায় ১০টা পর্যন্ত তারা বিভিন্ন এলাকায় সশস্ত্র মহড়া দেয়।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ জানায়, শহরে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ১৪ কোয়ার্টার, পালপাড়া ও কোড়ালিয়া রোডের কিছু যুবক দু’গ্রুপে বিভক্ত হয়ে দেশিয় অস্ত্রের মহড়া দেয়। এসময় তারা সামনে যেসব যানবাহন পায় তাই ভাঙচুর করে। এর মধ্যে জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কার্যালয়ের সামনে থাকা জেলা কমান্ডার এমএ ওয়াদুদের গাড়িটিও ভাঙচুর করে তারা। তারা সিএনজি ও ব্যাটারিচালিত অটোবাইকও ভাঙচুর করে। শনিবারও সন্ধ্যার পর-পর ওই যুবকরা দেশিয় অস্ত্রের মহড়া দেয় শহরের শপথ চত্বর, গনি স্কুল ও ক্যাফে কর্নারের মোড় এলাকায়।

চাঁদপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবদুল কাইয়ুম জানান, ঘটনার সঙ্গে সম্পৃক্তের অভিযোগে ৪ জনকে আটক করা হয়েছে। রাতেও অভিযান পরিচালনা করা হবে।

শহরে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতির বিষয়ে প্রশ্ন করলে তিনি বলেন, ‘দ্রুত অভিযান পরিচালনা করে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থাগ্রহণ করা হবে।

You Might Also Like