হোম » আগুয়েরোর অন্তিম মুহূর্তের গোলে ম্যানসিটির জয়

আগুয়েরোর অন্তিম মুহূর্তের গোলে ম্যানসিটির জয়

ঢাকা অফিস- Wednesday, January 10th, 2018

কারাবাও কাপের সেমিফাইনাল ডিসেম্বরেই নিশ্চিত করেছিল ম্যানচেস্টার সিটি। সেমিফাইনালে তারা প্রতিপক্ষ হিসেবে পেয়েছিল ব্রিস্টল সিটিকে। মঙ্গলবার রাতে ব্রিস্টল সিটির বিপক্ষে ইতিহাদ স্টেডিয়ামে সেমিফাইনাল প্রথম লেগে মুখোমুখি হয় পেপ গার্দিওলার শিষ্যরা। ৪৪ মিনিটে পিছিয়ে পরেও কেভিন ডি ব্রুইনি ও সার্জিও আগুয়েরোর গোলে ২-১ ব্যবধানে জয় পেয়ে ফাইনালে এক পা দিয়ে রেখেছে। ফিরতি গেলে অনাকাঙ্খিত কিছু না ঘটলে কারাবাও কাপের ফাইনাল খেলতে যাচ্ছে স্কাইব্লুজরা।

মঙ্গলবার রাতে ঘরের মাঠে ম্যাচের ৪৪ মিনিটেই পিছিয়ে পরে ম্যানসিটি। এ সময় ব্রিস্টল সিটির ববি রেইডকে পেনাল্টি বক্সের মধ্যে ফাউল করেন ম্যানসিটির জন স্টোনস। পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। পেনাল্টি থেকে গোল করে ব্রিস্টল সিটিকে এগিয়ে নেন বরি রেইড। তার গোলে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় ব্রিস্টল।

বিরতির পর ৫৫ মিনিটে সমতায় ফেরে ম্যানসিটি। এ সময় মাঝমাঠের একটু সামনে থেকে বল নিয়ে ডি বক্সের সামনে চলে যান কেভিন ডি ব্রুইনি। তার সামনে ব্রিস্টলের দুজন রক্ষণভাগের খেলোয়াড় ছিল। সুযোগ বুঝে বল বাড়িয়ে দেন ডানপ্রান্ত দিয়ে ডি বক্সের মধ্যে ঢোকা রহিম স্ট্রার্লিংকে। তাকে বল বাড়িয়ে দিয়েই দ্রুত ডি বক্সের ভেতরে চলে যান ব্রুইনি। ডানপ্রান্ত থেকে স্টার্লিং তাকে আবার বল ফেরত দেন। বল পেয়েই ডান পায়ে জোরালো শট নেন ব্রুইনি। তার বুলেট গতির শট রুখতে বিস্ট্রলের গোলরক্ষক ফ্রাঙ্ক ফিল্ডিং ডানদিকে ঝাপিয়ে পরেও শেষ রক্ষা করতে পারেননি (১-১)।

ম্যাচের যোগ করা সময়ে (৯০+২) আর্জেন্টাইন তারকা সার্জিও আগুয়েরো গোল করে ম্যানসিটির জয় নিশ্চিত করেন। এ সময় কেভিন ডি ব্রুইনি বল পেয়ে সময় নিয়ে বার্নার্ডো সিলভাকে বাড়িয়ে দেন। বার্নার্ডো ক্রস করে পেনাল্টি বক্সের মধ্যে থাকা আগুয়েরোকে বল দেন। আগুয়েরো মাথা লাগিয়ে বলের গতিপথ পরিবর্তন করে জালে পাঠান। উল্লাসে মেতে ওঠে গোটা স্টেডিয়াম। নিশ্চিত হয় ২-১ ব্যবধানের দারুণ জয়।