হোম » আক্কেল সেলামি দিলেন সালমান

আক্কেল সেলামি দিলেন সালমান

ঢাকা অফিস- Thursday, August 10th, 2017

বলিউড বক্স অফিসের অন্যতম সফল অভিনেতা সালমান খান। বিগত কয়েক বছর তার সিনেমার আয় অন্তত এ কথার সাক্ষ্য দেয়। কিন্তু সেই ধারাবাহিকতায় বাদ সাধে টিউবলাইট। বক্স অফিসে ব্যর্থ হয় সিনেমাটি। এই ব্যর্থতার আক্কেল সেলামিস্বরূপ ৩২.৫ কোটি রুপি পরিবেশকদের দিলেন সালমান।

গত জুনে টিউবলাইট সিনেমার ক্ষতিপূরণ বাবদ অর্থ পরিবেশকদের দেয়ার অঙ্গীকার করেন সালমান। অবশেষে গতকাল সেই অর্থ প্রদান করেন এ অভিনেতা। এ প্রসঙ্গে একটি সূত্র সংবাদমাধ্যমে বলেন, ‘সালমান জুলাইয়ের শেষ নাগাদ ক্ষতিপূরণের অর্থ দিতে চেয়েছিলেন। কিন্তু টাইগার জিন্দা হ্যায় সিনেমার শুটিংয়ে বিদেশে থাকায় তিনি দিতে পারেননি। এখন তিনি মুম্বাইয়ে ফিরেছেন এবং পরিবেশকদের ৩২.৫ কোটি রুপি ফিরিয়ে দিয়েছেন। টিউবলাইট সিনেমার জন্য পরিবেশকদের যে ক্ষতি হয়েছে এটি তার অর্ধেক।’

২০০১ থেকে ২০০৯ সাল পর্যন্ত নয় বছরে সালমান অভিনীত বেশ কিছু সিনেমা ফ্লপ হয়। তবে ২০০৯ সালে ঈদ উপলক্ষে মুক্তি পায় এ অভিনেতার ওয়ান্টেড। এ সিনেমার মাধ্যমে আবারো বক্স অফিসে শাসন শুরু করেন সালমান। ২০১০ থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত সালমানের ৪টি সিনেমা বক্স অফিসের ইতিহাসে সর্বোচ্চ আয়ের সিনেমার তালিকায় জায়গা করে নেয়।

ওয়ান্টেড সিনেমার পর দাবাং, রেডি, বডিগার্ড, এক থা টাইগার, কিক, সুলতান সালমানকে নিয়ে যায় অনন্য স্থানে। অ্যাকশন ঘরানার সিনেমার মাধ্যমে দর্শক হৃদয়ে বিশেষ জায়গা করে নেন তিনি। পাশাপাশি বক্স অফিসে আয় করেন শত শত কোটি রুপি। মাঝে বজরঙ্গি ভাইজান সিনেমায় অবশ্য ভিন্নভাবে নিজেকে উপস্থাপন করেন এ অভিনেতা। এটিও বক্স অফিস সাফল্য পায়।

যে কারণে নিশ্চিত মনেই সালমানের পক্ষে বাজি ধরেছিলেন পরিবেশকরা। আশা করেছিলেন লাভের মুখ দেখবেন। কিন্তু সেই আশায় গুড়েবালি। টিউবলাইট সিনেমাটিতেও নিজেকে একটু ভিন্নভাবে তুলে ধরেন সালমান। কিন্তু এবার আর সুবিধা করতে পারেননি। ফলাফল ঈদে মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমা হয়েও ব্যর্থতার খাতায় নাম লেখায় সিনেমাটি। পাশাপাশি লাভের পরিবর্তে ক্ষতির মুখে পড়ে পরিবেশকেরা।