আইএসের হাতে ৩৯ ভারতীয় নিহত হওয়ার কথা জানালেন সুষমা, প্রশ্ন কংগ্রেসের

ইরাকের মুসুলে আইএস সন্ত্রাসীদের হাতে ৩৯ ভারতীয় নিহত হওয়ার কথা জানিয়েছেন পররাষ্ট্র মন্ত্রী সুষমা স্বরাজ। তিনি আজ (মঙ্গলবার) সংসদের উভয় কক্ষে এ সংক্রান্ত বিবৃতি দেন।

২০১৪ সাল থেকে ৩৯ ভারতীয় নিখোঁজ ছিলেন। আই এস সন্ত্রাসীরা তাদের অপহরণ করেছিল। সুষমা স্বরাজ বলেন, মসুলের একটি গণকবর থেকে অপহৃত ভারতীয়দের লাশের সন্ধান পাওয়া গেছে। ডিএনএ পরীক্ষার পর ৩৮ জন ভারতীয়র সন্ধান পাওয়া গেছে এবং অন্য একজনের ডিএনএ পরীক্ষায় ৭০ শতাংশ মিল পাওয়া গেছে।সুষমা বলেন, ‘নিশ্চিত প্রমাণ পাওয়ার পরেই জানাচ্ছি, ওই ৩৯ জন মৃত। প্রমাণ হাতে আসার পরেই মৃতদের পরিবারকে আমরা এ কথা জানাতে চেয়েছি।’

গত বছর জুলাইতে সংসদে পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ বলেছিলেন, ‘ওই ভারতীয়দের আইএস সন্ত্রাসীরা হত্যা করেছে, এমন কোনো প্রমাণ এখনো পাওয়া যায়নি।

আজ সুষমার ঘোষণার পরেই কংগ্রেসের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, সরকার মৃতদের পরিবারকে মিথ্যে আশা দেয়া ছাড়াও দেশকে ভুল পথে চালিত করেছে। কংগ্রেসের সিনিয়র নেতা গুলাম নবি আজাদ বলেন, ‘গত বছরই সংসদে সুষমা জানিয়েছিলেন ওই ভারতীয়রা বেঁচে আছেন।’

কংগ্রেস নেতা শশী তারুর বলেছেন, ‘সকলেই ওই ঘটনায় মর্মাহত। সরকার এত দেরি করল কেন? কোথায় কীভাবে তাদের হত্যা করা হয়েছে তা সরকারের জানানো উচিত। যে ভাবে সরকার মৃতদের পরিবার, পরিজনকে অযথা আশ্বাস দিয়ে গেছে, তাও ঠিক নয়।’

অন্যদিকে, সুষমা স্বরাজের দাবি, ‘আমরা কাউকেই ভুল পথে চালিত করিনি। যথাযথ প্রমাণ না পাওয়া পর্যন্ত কাউকেই মৃত বলে ঘোষণা করা যায় না, এটাই বলেছিলাম।’

আজ লোকসভায় সুষমা স্বরাজ এ সংক্রান্ত বিবৃতি দেয়ার সময় কংগ্রেসের গোলযোগ সৃষ্টিকে তীব্র নিন্দা করে একে নিম্নমানের রাজনীতি বলে অভিহিত করেছেন। তিনি বলেন, মৃত্যু নিয়েও কী আমরা রাজনীতি করব? সুষমা বলেন, কংগ্রেস নেতা জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়ার নেতৃত্বে সংসদে যেভাবে গোলযোগ সৃষ্টি করা হয়েছে তা অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক।

You Might Also Like