আইএসআইএল’এর তেল বিক্রি করছে ২৭ ব্যবসায়ী

তুরস্ক এবং ইরাকের প্রায় ২৭ ব্যবসায়ী তাকফিরি সন্ত্রাসীগোষ্ঠীর কাছ থেকে কালো বাজারে তেল কিনে আইএসআইএল’কে তহবিল যোগান দিচ্ছেন। তুরস্কের এক রাজনীতিবিদ এ কথা জানিয়েছেন।

তুরস্কের বিরোধী দল রিপাবলিকান পিপলস পার্টি বা সিএইপি সাবেক সংসদ সদস্য মেহমেদ আলি এদিবোগ্লু এ কথা বলেন। তিনি বলেন, ইরাক এবং তুরস্কের ২৭ ব্যবসায়ী সরাসরি এ জাতীয় তৎপরতায় জড়িত বলে তথ্য আছে। ইরাকের কেন্দ্রীয় সরকার এ জাতীয় তৎপরতা বন্ধে বেশ কিছু পদক্ষেপ নিয়েছে বলেও জানান তিনি।

এ সব ব্যবসায়ীদের মধ্যে ইরাকের কুর্দি আঞ্চলিক সরকার বা কেআরজির ঘনিষ্ঠ লোকজনও রয়েছে বলে জানান তিনি। তিনি বলেন, তেলক্ষেত্র থেকে উত্তোলন করা তেল কালোবাজারে বিক্রি করাই সন্ত্রাসীগোষ্ঠী দায়েশের প্রধান আয়ের উৎস। গত বছর এ সব তেলক্ষেত্র দখল করেছে এ সন্ত্রাসীগোষ্ঠী।

এর আগে প্রকাশিত খবরে বলা হয়েছে, উত্তরাঞ্চলীয় ইরাক এবং সিরিয়ার রাক্কা প্রদেশে প্রায় ১২টি তেলক্ষেত্র নিয়ন্ত্রণ করছে তাকফিরি সন্ত্রাসীগোষ্ঠী দায়েশ বা আইএসআইএল।

এ সব ক্ষেত্র থেকে উত্তোলিত তেল তুরস্ক থেকে ভূমধ্যসাগরে পাঠানো হয় এবং সেখান থেকে বিশ্বের অন্যান্য স্থানে এ তেল পাচার হয় বলে জানান তুর্কি সাবেক সংসদ সদস্য মেহমেদ আলি এদিবোগ্লু। তিনি বলেন, তেল পাচার করে প্রতি বছর ৮০ কোটি ডলার আয় হয় পরে এ আয় বেড়ে এক থেকে দুই শ’ কোটি ডলারে গেছে বলে জানান তিনি।

এ ছাড়া, দায়েশের কাছে পরোক্ষ ভাবে অস্ত্র বিক্রির তৎপরতায় তুরস্ক জড়িত বলেও জানান তিনি। তিনি বলেন, সিরিয়ার যে সব জঙ্গিদের আংকারা ‘যুক্তিসংগত’ বলে মনে করে তাদের কাছে অস্ত্র বিক্রি করে তুরস্ক সরকার। দায়েশের চাপের মুখে এ সব জঙ্গি পরে তাদের অস্ত্র তাকফিরি গোষ্ঠীর কাছে বিক্রি করে দেয় বলেও জানান তিনি।

You Might Also Like