অ্যাটর্নি জেনারেল পদে দায়িত্ব পালনে মাহবুবে আলমের কোনো বাধা নেই: হাইকোর্ট

বাংলাদেশের সর্বোচ্চ আইন কর্মকর্তা মাহবুবে আলমের অ্যাটর্নি জেনারেল পদে থাকার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে করা রিট আবেদনটি সরাসরি খারিজ করে দিয়েছে হাইকোর্ট।

বিচারপতি নাইমা হায়দার ও বিচারপতি আবু তাহের মো. সাইফুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ আজ (মঙ্গলবার) এ আদেশ দেন। আদালতের আদেশে বলা হয়েছে, আইন ও সংবিধান অনুসারে অ্যাটর্নি জেনারেলের পদে দায়িত্ব পালনে মাহবুবে আলমের কোনো বাধা নেই।

আদালতে রিটের পক্ষে রিটকারী আইনজীবী ইউনুছ আলী আকন্দ নিজেই শুনানি করেন। আর অ্যাটর্নি জেনারেলের পক্ষে শুনানি করেন সিনিয়র আইনজীবী প্রবীর নিয়োগী, এ এম আমিন উদ্দিন, অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল মুরাদ রেজা। এ সময় রাষ্ট্রপক্ষের অনেক ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল আদালতে উপস্থিত ছিলেন। শুনানি শেষে হাইকোর্ট আজ রুল ইস্যু না করে রিট আবেদনটি খারিজ করে দেন।

পরে আইনজীবী ইউনুছ আলী আকন্দ জানান, রিট আবেদনটি গ্রহণযোগ্য নয় বলে তা খারিজ করেছে আদালত। হাইকোর্টের এই আদেশের বিরুদ্ধে আপিল করা হবে বলে তিনি জানান।

৬৭ বছর পূর্ণ হয়ে যাওয়ায় মাহবুবে আলম অ্যাটর্নি জেনারেল পদে থাকতে পারেন না মর্মে দাবি করে তাঁর পদে থাকার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে গত নভেম্বরে রিটটি করেন ইউনুছ আলী আকন্দ। পরদিন রিট আবেদনটি হাইকোর্টের একটি দ্বৈত বেঞ্চে উত্থাপন করা হয়। আদালত বিব্রতবোধের কথা জানান।

পরে প্রধান বিচারপতি বিষয়টি নিষ্পত্তির জন্য বিচারপতি নাইমা হায়দার ও বিচারপতি আবু তাহের মো. সাইফুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চে পাঠিয়ে দেন। শুনানি শেষে আজ আদেশ দেয় আদালত।

রিট আবেদনে বলা হয়, লিগ্যাল রিমেমবারেন্স ম্যানুয়াল-১৯৬০ অনুযায়ী অ্যাটর্নিদের পদ দুই বছরের জন্য। কিন্তু দুই বছর আগেও তিন মাসের নোটিস দিয়ে প্রেসিডেন্ট তাকে অপসারণ করতে পারেন। কিন্তু ওই আইন লংঘন করে প্রায় আট বছর ওই পদে বহাল আছেন বর্তমান অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।

You Might Also Like