হোম » অবৈধ সম্পদ রক্ষায় ক্ষমতা ছাড়তে চায় না আওয়ামী লীগ: রিজভী

অবৈধ সম্পদ রক্ষায় ক্ষমতা ছাড়তে চায় না আওয়ামী লীগ: রিজভী

ঢাকা অফিস- Friday, May 19th, 2017

আওয়ামী লীগ নেতাদের অবৈধ সম্পদের মালিকানা ও সম্পত্তি রক্ষায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতা ছাড়তে চান না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ। তিনি বলেন, আজকে খবরের কাগজ খুললেই আওয়ামী লীগের মন্ত্রী-এমপিদের প্রাসাদ আর হোটেলের ছবি আমরা দেখতে পাই। কী পরিমাণ দুর্নীতি করলে মাত্র পাঁচ থেকে ছয় বছরের মধ্যে এরকম কোটি কোটি টাকার মালিক হতে পারে। নেতাদের এই অবৈধ সম্পত্তি রক্ষার জন্যই প্রধানমন্ত্রী আজ ক্ষমতা ছাড়তে চান না।

আজ (শুক্রবার) সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এক মানববন্ধন কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে তিনি এ মন্তব্য করেন। বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বরকতউল্লাহ বুলু ও যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকনসহ সব রাজনৈতিক বন্দির মুক্তির দাবিতে এ মানববন্ধন আয়োজন করে বাংলাদেশ স্বাধীনতা ফোরাম নামের একটি সংগঠন।

রিজভী আহমেদ বলেন, বিএনপিকে আতঙ্ক মনে করে বলেই সরকার আজ বিরোধী দলের নেতা-কর্মীদের দিয়ে দেশের সমস্ত কারাগার ভরেছে। বিএনপির নেতাদের গুম, খুন, হত্যার পরও এই সরকারের আতঙ্ক যেন কাটছেই না। কিন্তু বিএনপি সরকারকে ভয় পায় না। আন্দোলন সংগ্রামের দল বিএনপি।

তিনি আরও বলেন, প্রশাসন বিচার বিভাগের ওপর হস্তক্ষেপ করছে, প্রধান বিচারপতির এমন বক্তব্যের ফলে আওয়ামী লীগের নেতাদের গায়ের জ্বালা বেড়ে যাচ্ছে। তিনি যখন সত্য কথা বলেন আওয়ামী লীগের নেতাদের গায়ে তখন জ্বালা শুরু হয়। উনারা এতোই ধোয়া তুলসি পাতা, ওনাদের মন্ত্রী দণ্ডপ্রাপ্ত হলেও বহাল তবিয়তে মন্ত্রিত্ব করতে পারেন।

এদিকে, আইনের শাসনকে সরকার দলীয় শাসনে পরিণত করেছে উল্লেখ করে, বিএনপি’র স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেছেন, এখন যেটা হয়, আইনের শাসন মানে দলীয় শাসন। আমাদের বর্তমান যে প্রধান বিচারপতি তার প্রশংসা করতে হয়। তিনি চেষ্টা করছেন, বিচার বিভাগের স্বাধীনতাটাকে সত্যিকারভাবে প্রতিষ্ঠা করার জন্য। তার এ প্রচেষ্টা সফল হোক, এটাই আমরা চাই।

সুষ্ঠু নির্বাচন হলে আওয়ামী লীগের পরাজয় অবধারিত উল্লেখ করে তিনি বলেন, পরাজয়ের আশঙ্কায় সুষ্ঠু নির্বাচন দিতে আওয়ামী লীগ ভয় পায়। আগামীতে যদি অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের ব্যবস্থা হয়, যেখানে একদলীয় নির্বাচন হবে না, সেই নির্বাচনে বিএনপি অংশগ্রহণ করবে।

আজ (শুক্রবার) সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ গণতান্ত্রিক সাংস্কৃতিক জোট আয়োজিত এক আলোচনা সভায় ব্যারিস্টার মওদুদ এসব কথা বলেন।

বিএনপি যেকোনো সময় নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত উল্লেখ করে তিনি বলেন, নির্বাচনে জনগণকে ভোটের অধিকার ফিরিয়ে দিতে হবে। এজন্য আমরা বলেছি, নির্বাচন সহায়ক সরকারের কথা। যাদের কোনো রাজনৈতিক স্বার্থ থাকবে না।