অবিলম্বে কার্যকর ব্যবস্থা নিতে বাংলাদেশের প্রতি হিউম্যান রাইটস ওয়াচের আহ্বান

জহুরূল আলম : নিউ ইয়র্ক ভিত্তিক আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা হিউম্যান রাইটস ওয়াচ বা এইচআরডাবলু বাংলাদেশে নারীদের বিরুদ্ধে ক্রমবর্ধমান যৌন ও অন্যান্য সহিংসতা বৃদ্ধির প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়েছে।

শুক্রবার এক বিবৃতিতে এইচআরডাবলু নারীর বিরুদ্ধে সহিংসতা মোকাবেলায় এবং সহিংসতার শিকার নারীদের নিরাপত্তা দিতে অবলম্বে কার্যকর ব্যাবস্থা নিতে বাংলাদেশ সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে। বিবৃতিতে মানবাধিকার সংস্থাটির দক্ষিন এশিয়া বিষয়ক পরিচালক মিনাক্ষি গাঙ্গুলি বলেছেন দেশটির মানুষ ধর্ষণের মত হীন অপরাধ দমনে সরকারের শোচনীয় ব্যর্থতা যথেষ্ট দেখেছে। তিনি ধর্ষণ ও নারী নির্যাতন বন্ধে নিছক প্রতিশ্রুতি দেয়ার পরিবর্তে সরকারকে দেশের জনগনের বক্তব্য শোনার পরামর্শ দিয়েছেন। ধর্ষণ এবং নারী নির্যাতনের মামলার বিচারে গতি আনতে এবং ঝুলে থাকা মামলার বোঝা কমাতে দেড় বছর আগে ৭ দফা নির্দেশনা দিয়েছিলেন উচ্চ আদালত। গনমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে ওই নির্দেশনায় ৬ মাসের মধ্যে মামলা নিষ্পত্তির সময় বেঁধে দিলেও এর কোন প্রভাব পড়েনি বিচারে। খবরে বলা হয় দুই লাখেরও বেশি ধর্ষণের মামলা আদালতে বিচারের অপেক্ষায় আছে। এতে বলা হয়েছে রাষ্ট্রের আইন কর্মকর্তাদের কাছে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তাঁরা এ সকল মামলা নিস্পত্তি না হওয়ার জন্য বিভিন্ন প্রতিবন্ধকতার কথা বলে থাকেন যার মধ্যে অভিন্ন বক্তব্যটি হচ্ছে সাক্ষ্যদানে সাক্ষীদের অনীহা।

এদিকে, আজ পঞ্চম দিনের মত রাজধানি ঢাকা সহ সারা দেশে নারীর প্রতি সহংসতা ও ধর্ষণের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ বিক্ষোভ অব্যাহত থাকে। দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে পাওয়া খবরে জানা গেছে শিক্ষার্থী, রাজনৈতিক দল, ছাত্র সংগঠন ও বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ সারা দেশে মানাব বন্ধন এবং বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে। বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের মুশফিক, তামিম সহ অন্যান্য সিনিয়র খেলোয়াড়রা ধর্ষক ও নারী নির্যাতন কারিদের বয়কট করার আহ্বান জানিয়েছেন। ঢাকায় বিভন্ন যায়গায় আজ দিনভর বিক্ষোভ সমাবেশ হয়েছে। বাম ছাত্র সংগঠন গুলোর উদ্যোগে ধর্ষণ ও বিচার হীনতার বিরুদ্ধে বাংলাদশ ব্যানারে বিকেলে শাহাবাগ চত্তরে মহা সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। মহাসমাবেশের পক্ষ থেকে ধর্ষকদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পদত্যাগ সহ নয় দফা দাবি জানানো হয়। সূত্র: ভিওএ

 

You Might Also Like