অপহরণের পর কালোবাজারে নিলামে মডেল

ফ্যাশন-ডিজাইনের বৈশ্বিক রাজধানী খ্যাত ইতালির মিলানে গিয়ে সম্প্রতি অপহরণের শিকার হন এক ব্রিটিশ মডেল।

ভয়ংকর এই অপহরণকারী তাকে অনলাইনের কালোবাজের বিক্রি করতে নিলামে তোলে। তবে শেষ রক্ষা হয়েছে তার।

২০ বছর বয়সি তরুণী মডেল তার এজেন্টের বন্দোবস্তে মিলানে ফটোশুটে যান। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনকভাবে সেখানে তাকে চেতনানাশক ওষুধ দিয়ে অজ্ঞান করা হয়। এরপর এক ভয়ংকর পরিক্রমার মধ্য দিয়ে যেতে হয় তাকে।

১০ জুলাই মিলানে যান এই ব্রিটিশ মডেল। তবে গণমাধ্যমে তার নাম প্রকাশ করা হয়নি। পরের দিন একটি অ্যাপার্টমেন্টে ফটোশুটের জন্য যান। সেখানে ওৎঁ পেতে থাকা দুই ব্যক্তি তার ওপর হামলা চালায়।
পুলিশ জানিয়েছে, তাকে কেটামাইন চেতনানাশক দিয়ে অজ্ঞান করা হয় এবং হাতকড়া পরিয়ে একটি ব্যাগে ভরা হয়। এ অবস্থায় গাড়ির পেছনে রেখে কয়েক ঘণ্টা যাত্রার পর তুরিন শহরের উত্তর-পশ্চিমে বরগিয়ালের একটি বিচ্ছিন্ন বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়।

বরগিয়ালের ওই বিচ্ছিন্ন বাড়িতে একটি কাঠের ড্রয়ারের ওপর হাতকড়া পরানো অবস্থায় ছয় দিন আটকে রাখা হয় তাকে। অপহরণকারী তাকে অনলাইনের কালোবাজের বিক্রির জন্য নিলাম হাঁকে। সেখানে দাম ও বর্ণনা দিয়ে বিজ্ঞাপন দেয়। তবে মডেলের এজেন্টের কাছে তার মুক্তির জন্য ৩ লাখ ডলার দাবিও করে অপহরণকারী। অনলাইনে নিলামের বিজ্ঞাপন দেখে তাকে উদ্ধার করে পুলিশ।

ইতালি পুলিশ জানিয়েছে, যুক্তরাজ্যে বসবাসকারী পোল্যান্ডের নাগরিক লুকাজ হেরবাকে (৩০) অপহরণের দায়ে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অনলাইনের কালোবাজারে মানব পাচারচক্র ‘ব্ল্যাক ডেথ গ্রুপ’-এর হয়ে কাজ করে থাকেন হেরবা।

You Might Also Like