অনূর্ধ্ব-১৯ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপ : ভারতের মুখোমুখি বাংলাদেশ

নেপালে প্রথমবারের মতো বসেছে সাফ অনূর্ধ্ব-১৯ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের আসর। গ্রুপপর্বের বাঁধা টপকে ইতোমধ্যে সেমিফাইনালে উঠেছে বাংলাদেশ। তবে ফাইনালে যাওয়ার ক্ষেত্রে বাংলাদেশের পথ আগলে দাঁড়িয়েছে ভারত। তাদের হারাতে পারলেই প্রথমবারের মতো আয়োজিত এই টুর্নামেন্টের ফাইনালে পৌঁছে যাবে বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ সময় বিকেল পৌনে ৪টায় শুরু হবে ম্যাচটি। সরাসরি সম্প্রচার করবে নেপালের কান্তিপুর গোল্ড টিভি। গোলনেপাল ডটকমের ওয়েবসাইটেও দেখা যাবে খেলা (http://tv.goalnepal.com/)|

সদ্য সমাপ্ত সাফ অনূর্ধ্ব-১৬ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপে ভারতকে দুইবার হারিয়েছে বাংলাদেশের কিশোর ফুটবলাররা। গ্রুপপর্বে ২-১ ব্যবধানে এবং ফাইনালে টাইব্রেকারে। তাদের সাফল্যে উজ্জীবিত হয়ে বাংলাদেশের যুবারাও বিশেষ কিছু করে দেখাবে এমনটাই প্রত্যাশা সবার।

সেমিফাইনালের আগে ভারতকে সমীহ করে বাংলাদেশ দলের কোচ সাইফুল বারী টিটু বলেন, ‘ভারত দারুন এক ভারসাম্যপূর্ণ দল। তাদের বিপক্ষে খেলার আগে অনেক কিছু মাথায় রেখেই মাঠে নামতে হবে। কারণ ভারতের প্রতিটি খেলোয়াড়েরই গোল করার সামর্থ্য আছে। নেপালের বিপক্ষে হারাটা কাম্য ছিল না। যাই হোক যা হয়ে গেছে তা ভেবে লাভ নেই। এখন আমাদের একটা দল হয়ে খেলে ম্যাচ রেজাল্ট বের করে আনতে হবে।’

বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক জনি বলেন, ‘ভারতের বিপক্ষে আমাদের খেলতে হবে। ইনশাল্লাহ আমরা ফাইনালে যাওয়ার জন্যই খেলব। আমরা যদি ঠিকভাবে খেলতে পারি তাহলে ইনশাল্লাহ ফাইনালে যেতে পারব।’

বাংলাদেশকে সমীহ করতে ভোলেননি ভারতের কোচ সৈয়দ সাবির পাশা, ‘বাংলাদেশ দলটি বেশ ভাল। আমি তাদের ফুটবল সংস্কৃতিকে সম্মান করি। আমি খেলোয়াড় হিসেবে এই দলের বিপক্ষে খেলেছি। এখন কোচ হিসেবে বাংলাদেশের বিপক্ষে ডাগ আউটে থাকব।’

গ্রুপপর্বে বাংলাদেশ নিজেদের প্রথম ম্যাচে ২-০ ব্যবধানে ভুটানকে হারায়। দ্বিতীয় ম্যাচে নেপালের বিপক্ষে আত্মঘাতি গোলে হেরে যায়। কিন্তু তারপরও সেমিফাইনালের টিকিট পায় সাইফুল বারী টিটুর শিষ্যরা।

অন্যদিকে ভারত তাদের প্রথম ম্যাচে আফগানিস্তানকে ২-০ গোলে হারায়। আর দ্বিতীয় ম্যাচে মালদ্বীপকে হারায় ৩-০ গোলে।

এখন দেখার বিষয় কিশোর ফুটবলারদের মতো যুবারাও ভারতের বাঁধা টপকে ফাইনালে উঠতে পারে কিনা।

You Might Also Like