অতিরিক্ত ভাড়া বন্ধের দাবিতে ৯ সংগঠনের মানববন্ধন

যাত্রীদের জিম্মি করে গণপরিবহনে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় বন্ধ করা ও যাত্রী হয়রানির প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে নয়টি সামাজিক সংগঠন।

আজ বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

পরিবেশ বাঁচাও (পবা), ওয়ার্ক ফর এ বেটার বাংলাদেশ (ডাব্লিউবিবি) ট্রাস্ট, পল্লীমা গ্রীণ, নাগরিক অধিকার সংরক্ষণ ফোরাম, আইনের পাঠশালা, পরিবেশ উন্নয়ন সোসাইটি, বিসিএইসআরডি, মার্শাল আর্ট ফাউন্ডেশন এই মানববন্ধনের আয়োজন করে।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, বাস ও মিনি বাসে সরকার নির্ধারিত ভাড়ার তালিকা নেই। যে কয়েকটি বাসে ভাড়ার তালিকা রয়েছে তাতেও দুরত্ব বাড়িয়ে লেখা রয়েছে। এতে প্রতিনিয়ত যাত্রীদের সাথে বাকবিতন্ডায় জড়িয়ে পড়েন পরিবহন শ্রমিকরা।

বক্তারা আরো বলেন, ঢাকা ও আশপাশের জেলার প্রত্যেক নাগরিককে দূরত্বভেদে ৫শ’ থেকে দেড় হাজার টাকা বেশি ভাড়া দিতে হচ্ছে। এর ফলে প্রতিটি পরিবারকে যাতায়াত খাতে ২ হাজার থেকে ৫ হাজার টাকা বেশি ব্যয় করতে হবে।

পরিবহণ শ্রমিকরা আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল নয় এমনটা দাবি করে বক্তারা বলেন, বি আরটিএ ভ্রাম্যমান আদালত চালকের সহকারীকে এক মাসের কারদ- দেওয়ায় বিনা নোটিশে পরিবহণ ধর্মঘট ডেকে সৃষ্ট নৈরাজ্যকর পরিস্থিতি জনগণকে অবর্নণীয় দূর্ভোগের শিকার হচ্ছে।

বক্তারা দাবি জানান, পরিবহন খাতে কঠোর মনিটরিংয়ের ব্যবস্থা করা প্রয়োজন এবং যে কারো বিরুদ্ধে প্রমাণ সাপেক্ষে অভিযোগ পাওয়া মাত্রই তৎক্ষনাৎ আইনের আওতায় আনতে হবে।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন, পবার নির্বাহী সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী আব্দুস সুবহান, পরিবেশ উন্নয়ন সোসাইটির সভাপতি বোরহান উদ্দিন, ওয়ার্ক ফর এ বেটার বাংলাদেশ ন্যাশনাল এডভোকেসি অফিসার মারুফ রহমান প্রমুখ।

You Might Also Like